অস্থায়ী কর্মীদের জন্য বড়সড় সিদ্ধান্ত নবান্নের, খুশির হাওয়া রাজ্য জুড়ে

লক্ষ্য একুশের বিধানসভা নির্বাচন যদিও তার আগে পুরসভা নির্বাচন রয়েছে তাই তো এই দুই নির্বাচনকে হাতিয়ার করে ময়দানে ঝাঁপাতে চাইছে রাজ্যের শাসক শিবির। যদিও লোকসভা ভোটে বিজেপির দাপাদাপি বেড়ে গিয়েছিল কিন্তু বিধানসভা উপনির্বাচনে সেই দাপাদাপি কিছুটা হলেও কমেছে কিন্তু তাতেও চিন্তা যাচ্ছে না শাসক শিবিরের কপালে আর তাই তো এ বিভিন্ন দপ্তরের অস্থায়ী কর্মীদের স্থায়ীকরণের পথে হাঁটছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। তাই এ বার রাজ্য জুড়ে বিভিন্ন পঞ্চায়েত দফতর যে অস্থায়ী কর্মচারী রয়েছেন তাঁদের স্থায়ী নিযুক্ত করার চিন্তা ভাবনা করছে রাজ্য সরকার।

আজ যে ইতিমধ্যেই পঞ্চায়েত দফতরে পনেরো হাজার অস্থায়ী কর্মী রয়েছে তবে তাঁদের মধ্যে যাঁরা দু বছরের বেশি সময় ধরে অস্থায়ী পদে রয়েছেন তাঁদের স্থায়ী করা হবে বলে নির্দেশিকা তৈরি করা হয়েছে। যদিও বিশেষ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে অস্থায়ী কর্মীদের স্থায়ীকরণ করা হবে। প্রথমে অস্থায়ী কর্মীদের এক বছরের জন্য প্রবেশনারি হিসেবে রাখা হবে তার পর যাঁরা ভালো কাজ করবেন তাঁদের পরীক্ষায় বসতে দেওয়া হবে এবং পরীক্ষায় বসে পাশ করলে তবে স্থায়ী করা হবে কিন্তু যারা পাশ করতে পারবেন না তাঁদের আবারও এক বছর প্রবেশনারি পদে রাখা হবে।

সমস্তরকম এক্সক্লুসিভ খবর পেতে লাইক করুন