BREAKING: মার্কিন হামলায় মৃত্যু সেনাপ্রধানের, তোলপাড় বিশ্ব জুড়ে

আগের থেকেই সবাই জানে আমেরিকা ও ইরানের মধ্যে সম্পর্ক কেমন? আসলে তাদের মধ্যে সম্পর্ক একেবারে ভালো না। এই দুই দেশ একে অপরকে কোণঠাসা করা জন্য উঠেপড়ে লেগেছে। তবে এখানে দিনের শেষে জয়ী আমেরিকা। কারণ সম্প্রতি ইরানের মাটিতে এক ভয়াবহ বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে আমেরিকা, আর এটা দেশের বিভিন্ন সুত্র মারফত খবর পাওয়া গেছে।

বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে এই হামলা ইরানের মাটিতে আমেরিকাই করেছে। এই দুই দেশের মধ্যে যেমনভাবে ছায়া যুদ্ধ লেগে থাকে, আর সেটাকে কেন্দ্র করে দেখলে এই হামলা যথাযথ।

জানা যায়, বাগদাদ বিমান বন্দরের খুব কাছেই এই হামলা চালানো হয়। আর এই হামলার ফলেই মৃত্যু হয় কুদস ফোর্সের প্রধান জেনারেল কাসেম সুলেমানের। তিনটি রকেট হামলা করা হয় ইরানের মাটিতে। আর এই হামলার মাস্টার মাইন্ড ট্রাম্প, এমনটাই মনে করছে অনেক বিশেষজ্ঞরা।

তারা আরও বলেছে, এই হামলা ট্রাম্পের ইশারাতেই কার্যকর করা হয়। আর পরবর্তীতে তা সফলও হয়। এবার এর সাথে যুক্ত হয়ে গেলো আরেক ধরনের বিষয়। এই জেনারেলের মৃত্যুর বিশ্ব রাজনীতিতে দারুণ ভাবে প্রভাব পরবে।

আর তার থেকেও আরেকটা গুরুত্ব পূর্ণ বিষয় সেটা হল তেলের দামের ওপরে বিশেষ ভাবে প্রভাব পরতে চলেছে। ইতিমধ্যে তার প্রভাবও শুরু হয়ে গেছে সেটা হল অনেক জায়গায় পেট্রোলের সার্জ প্রাইজ ৪% পর্যন্ত হয়ে গেছে। এদিকে আমেরিকা যে খুব মাথা খাটিয়ে কাজটা করেছে তা স্পষ্ট।


কারণ বিশেষজ্ঞরা বলেছে, যখন সোলেমান ও পপুলার মোবিলাইজিং এর দুই নেতা বাগদাদ বিমান বন্দরে আসার কথা ছিল ঠিক তখনই আমেরিকা হামলা করে। আর তার ফলে দুই দলের প্রধান সেখানেই মারা যান। সোলেমানের সাথে আরও ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।

সমস্তরকম এক্সক্লুসিভ খবর পেতে লাইক করুন