রাম মন্দির তৈরির জন্য বড়সড় পদক্ষেপ কেন্দ্রের

ছবিঃ সংগৃহীত

অযোধ্যা মামলার বিতর্ক যেন শেষ হয়েও শেষ হচ্ছে না, এমনিতে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে অযোধ্যার 2.77 একর জমির ওপর তৈরি হচ্ছে রাম মন্দির। 9 নভেম্বর তারিখে সুপ্রিম কোর্টের রায়দানের পর হিন্দুদের রাম মন্দির নির্মাণের জন্য দ্রুত গতিতে কাজ এগিয়ে নিয়ে যেতে চাইছে কেন্দ্র।

এমনিতেই ঝাড়খণ্ড বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে গিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ আগামী চার মাসের মধ্যে রামমন্দির নির্মিত হবে বলেই প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। তবে মন্দির নির্মাণের জন্য সুপ্রিম কোর্টের তরফে ট্রাস্ট তৈরি করা হয়েছে কিন্তু দ্রুত তৈরির কাজ শেষ করতে কেন্দ্রের তরফ থেকে অতিরিক্ত সচিব নিয়োগ করা হয়েছে, জ্ঞানেশ কুমার নামের এই অতিরিক্ত সচিবকে রাম মন্দির তৈরির জন্য সমস্ত তদারকির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

1992 সালে অযোধ্যায় মসজিদ ভাঙাকে কেন্দ্র করে যে রাম মন্দির ও অযোধ্যা মামলা সূচনা হয়েছিল দীর্ঘ কয়েক দশক পর সেই মামলার রায়দান করেছে দেশের শীর্ষ আদালত। এ তো মন্দির নির্মাণের জন্য ট্রাস্টের হাতে দায়িত্ব তুলে দেওয়া হয়েছে সেই ট্রাস্টের মধ্যে থাকবেন না কেন্দ্রীয় বিজেপি নেতৃত্বদের মধ্যে কেউই, এমনকি কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে এক টাকাও দেওয়া হবে না মন্দির নির্মাণের জন্য।

অন্যদিকে অযোধ্যার জমি লাগোয়া যে মসজিদ নির্মাণের কথা বলা হয়েছে তার জন্য উত্তরপ্রদেশের মির্জাপুর শামসুদ্দিন পুর চাঁদপুর কে এখনও অবধি চিহ্নিত করা হয়েছে।