যাদবপুরে মহিলার মৃত্যু নিয়ে উঠে এলো চাঞ্চল্যকর তথ্য

প্রতীক ছবি

এবার যাদবপুরের মহিলার রহস্য মৃত্যু। সেখানে ফরেনসিক টিম গিয়ে সব দেখে এটা পাকাপাকি ভাবে প্রমাণ করে যে, এই মৃত্যু কোনোভাবেই স্বাভাবিক মৃত্যু না। তাছাড়া এই মৃত্যুর সময় কোনো প্রত্যক্ষদর্শী না থাকায় আরও অসুবিধার মধ্যে পরেছে ফরেনসিক টিম।

তারা যেখান থেকে মৃত্যু হয়েছে সেখানে গিয়ে তিনটি চিহ্ন পায় যা খুবই সন্দেহজনক। একটা জায়গায় মহিলার নখের আঁচড়ের দাগ পাওয়া গেছে, এমনকি দেওয়ালেও পাওয়া গেছে নখের দাগ, আর এই মৃত্যু যে ছাদ থেকে পরে হয়েছে তা একেবারে স্পষ্ট। তার ছাদে বসে থাকার চিহ্ন পর্যন্ত পাওয়া গেছে।

আর ফরেনসিক টিম সেই নখের আঁচড় দেখে সন্দেহ করছে যে, মহিলা বাঁচার চেষ্টা করেছে, আর তার জন্যই এই নখের দাগ। তবে এটা খুন না স্বাভাবিক মৃত্যু? প্রশ্ন এখানেই। এবার এই সন্দেহের কারণে তার স্বামী কুন্তলকে গ্রেফতার করা হয়েছে, তাকে দফায় দফায় প্রশ্ন করা হচ্ছে। অবশ্য সকালে উঠে তিনি নিজের স্ত্রীয়ের খোঁজ করেন অনেক ফ্ল্যাটে গিয়ে।

সমস্তরকম এক্সক্লুসিভ খবর পেতে লাইক করুন

পরে যখন ছাদে দেখা যায় তখন সেখানে গিয়ে একজোড়া চটি ও একটি মদের বোতল পাওয়া যায়। এখন এখান থেকে অনেকেই সন্দেহ করছে যে মদ খেয়ে ছাদের কার্নিশে গিয়ে ব্যালেন্স হারিয়ে নীচে পরেও মৃত্যু হতে পারে সেই মহিলার। তবে আসলটা এখনও জানা যায় নি।