মদের দোকান নিয়ে বড়সড় ঘোষণা নবান্নের, বিপাকে মদ প্রেমি

১৪ মাস আগে অনলাইনে আবেদন করার মাধ্যমে বিলিতি মদের দোকান খোলার লাইসেন্স দিয়েছিল রাজ্য। এবার নির্বিচারে মদের দোকান খোলার অভিযোগ তুলেছে বিরোধী দলগুলি। শুক্রবার ফের বিলিতি মদের দোকানের লাইসেন্স বাতিল করা শুরু করে দিয়েছে আবগারি দপ্তর।

লাইসেন্সপ্রাপ্তদের আবেদনের সঙ্গে জমা দেওয়া টাকা ফেরত দিয়ে দেবে সরকার। জানা গিয়েছে, প্রতিটি দোকান পিছু লাইসেন্সের জন্য ২৫ থেকে ৩০ লাখ টাকা বিনিয়োগ করেছিলেন। একটি দোকানে গড়ে ৪ থেকে ৫ জন কাজ করতেন। সরকারি নিয়মে লাইসেন্স পেয়ে দোকান খোলার পর সরকারই তা বদলে ফেলায় লাইসেন্সপ্রাপকেরা পড়েছেন বিড়ম্বনায়।

নবান্নের খবর অনুযায়ী, রাজ্যে এখনও ৫ হাজার মদের দোকান রয়েছে। এ বছর মদ বিক্রি থেকে ১২ হাজার কোটি টাকা তোলার লক্ষ্য নিয়েছে রাজ্য। এই কারনেই ২০১৮ সালে আরও ১ হাজার নতুন দোকান খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল রাজ্য।

সমস্তরকম এক্সক্লুসিভ খবর পেতে লাইক করুন

প্রায় দেড় হাজার আবেদন পরে। বাছাই করে প্রায় ১ হাজার লাইসেন্স দেওয়ার জন্য অনুমোদিত হয়। তবে এই দোকানগুলি খোলা শুরু হলেই জেলায় জেলায় শুরু হয় বিক্ষোভ। তারপরেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দোকানগুলি বন্ধ রাখতে বলেছিলেন। ২৭ ডিসেম্বর প্রায় ১ হাজার লাইসেন্স বাতিল করা হয়।