কর্ণাটকের উপনির্বাচনে এগিয়ে বিজেপি, কংগ্রেসের মতে এটা অর্থবল

কংগ্রেস এখন মনে করছে বিজেপি টাকার জোড়ে এমন করেছে। কারণ কর্ণাটকের উপনির্বাচনে ১৫ টি আসনের মধ্যে ১২ টিতে এগিয়ে আছে বিজেপি। আর বাকি দুটি আসন পেয়েছে কংগ্রেস। এই উপনির্বাচনে মোট ৭ টি আসন পেলেই বিজেপি তাদের সরকার একক ভাবে ধরে রাখতে পারত। কিন্তু সেখানে তারা পেয়ে গেছে প্রায় ডবল। এবার উৎসবের প্রস্তুতি চলছে। আগে সমীক্ষায় যা বলা হয়েছিল এবার তাই হল আসল ভোটেও।

এদিকে এই ফল দেখার পর বিজেপি বলেছে, আমরা একটা সময় সবচেয়ে বেশী আসন পাওয়ার পরেও আমাদের সরকার গঠন করতে দেয়নি কংগ্রেস ও জেডিএস। তারা একে ওপরে জোট করে কর্ণাটকে সরকার গঠন করেছে। কিন্তু এবার মানুষ তাদের ভোটের মাধ্যমে বুঝিয়ে দিয়েছে, তারা কাকে চায়।

ভোটারেরা কংগ্রেস ও জেডিএসকে ভোট দেয় নি। আর দেখা গেলে কংগ্রেসও ভোট পায় নি, তারা যেটা আশা করেছিল। কিন্তু পরে কংগ্রেসের শপথ গ্রহণের আগে বিজেপি সরকার গঠন করে ফেলে। এই নিয়ে ঝামেলা হলে ১৫ জন বিধায়ককে বরখাস্ত করে বিধানসভা অধ্যক্ষ। কিন্তু তাতেও বিজেপির ইয়েদুরাপ্পা আস্থা ভোটে জিতে যায়। পরে যাদের বরখাস্ত করা হয়েছিল তাদের তরফ থেকে উপনির্বাচন লড়ার আবেদন করা হয়, এবং তাতে মত দেয় বিধানসভা অধ্যক্ষ। পরে এই উপনির্বাচন সংঘটিত হলে সেখানে ভালো ভলে জয়লাভ করে বিজেপি।

এদিকে কংগ্রেস থেকে বিজেপিতে আসা রমেশ জারখিওলি, তিনি বলেন আমার সাথে ৩৫ জন কংগ্রেস বিধায়কের কথা বার্তা চলছে, সে চাইলে বিজেপিকে বিধানসভা থেকে খালি করে দিতে পারে। তাই কংগ্রেস এখন ভয়েই আছে। এখন তিনি তার পুরোনো দল থেকে আরও কাওকে বিজেপিতে যোগ করাবেন কিনা, সেটা নিয়েই গুঞ্জন তুঙ্গে।

সমস্তরকম এক্সক্লুসিভ খবর পেতে লাইক করুন