শিলিগুড়িতে মানুষ ও বন্যপ্রাণী সংঘাত কমাতে সচেতনতামূলক কর্মশালা

প্রতিকী ছবি

শিলিগুড়ি:- শনিবার নকশালবাড়িতে মানুষ ও বন্যপ্রাণী সংঘাত কমাতে সচেতনতা মূলক কর্মশালার আয়োজন করে বনবিভাগ। এদিন নকশালবাড়ির কমিউনিটি হলে বিভিন্ন বিভাগের আধিকারিক ও গ্রামের মানুষদের সঙ্গে নিয়ে বনবিভাগ মানুষ ও বন্যপ্রাণী সংঘাতের কারণ ও নিবারণের বিষয় গুলি নিয়ে এই কর্মশালায় আলোচিত করে।

এদিনের কর্মশালায় বিশেষ করে হাতি ও চিতাবাঘ বিস্তার ও প্রবণতা নিয়ে আলোচিত হয়। অন্যদিকে বিশেষ করে চা বাগান এলাকায় চিতাবাঘের আতঙ্ক বেশি বলে দাবি বনবিভাগের। বনাঞ্চলে খাবারের যোগান ফুরিয়ে যাওয়ায় চা বাগান ও গ্রামের দিকে ঢুকে পড়েছে চিতাবাঘ। ৭৬ শতাংশ ঘটনায় চা বাগান শ্রমিকদের উপর চিতাবাঘের হামলা হয়।

কার্শিয়াং ডিভিশনের পাদদেশে প্রায় ৪৭টি চা বাগান আছে। এদিন উক্ত কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন উত্তরবঙ্গ সিসি এফ দেবাংশু মল্লিক, কার্শিয়াং ডিভিশনের ডিএফও জে শেক ফরিদ, এডিএফও চিন্ময় বর্মন, ওয়াল্ড লাইফ ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়ার গবেষক ডঃ দিপাঞ্জন নাহা, নকশালবাড়ি বিডিও বাপী ধর, খড়িবাড়ি বিডিও জগেশ চন্দ্র মন্ডল সহ গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধানরা, এস এসবি আধিকারিকরা, পুলিশ আধিকারিক, বিভিন্ন চা বাগানের ম্যানেজাররা, পরিবেশেপ্রমী সংগঠনের সদস্যরা।

বিভিন্ন দলীয় স্থানীয় নেতৃত্বরা, জেএফএমসি সদস্যরা সহ হাতি উপদ্রুত গ্রামের মানুষ। সেক্ষেত্রে এইসব সংঘাত কমাতে সচেতনতামূলক প্রচারে জোর দিচ্ছে বনবিভাগ। পাশাপাশি বিভিন্ন উপায় নিতে চলেছে বনবিভাগ।

সমস্তরকম এক্সক্লুসিভ খবর পেতে লাইক করুন