টানা ১৪ দিন ধরে কর্মবিরতিতে অচলাবস্থা গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে

মালদা ৩ ডিসেম্বর : টানা ১৪ দিন ধরে কর্মবিরতিতে অচলাবস্থা গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে। শিক্ষা কর্মী, অফিসারদের বেতন দিতে না পেরে পদ্যত্যাগ ফিনান্স অফিসার ভাস্কর বাগচীর। মঙ্গলবার সকালে গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে গিয়ে দেখা যায় মেইন গেটের সামনে অবস্থান বিক্ষোভ চলছে অস্থায়ী কর্মীদের। অস্থায়ী কর্মীদের পাশে দাঁড়িয়েছে বিশ্ব বিদ্যালয়ের স্থায়ী কর্মীরাও। টানা ১৪ দিন ধরে তাঁদের কর্মবিরতি চলছে। নতুন করে রেজিস্ট্রার বিপ্লব গিরির পদত্যাগের দাবিতে সরব হয়েছেন আন্দোলনকারীরা।বিশ্ব বিদ্যালয়ের এক কর্মী জানান, বিশ্ব বিদ্যালয়ের কর্মীরা তিনটি দাবি নিয়ে গত ১৪ দিন ধরে কর্মবিরতিতে বহাল রয়েছেন। দুটো দাবি নিয়ে বিশ্ব বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ নড়াচড়া করলেও মূল দাবি নিয়ে বিশ্ব বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কোনও হেলদোল নেই। যতক্ষণ না অস্থায়ী কর্মীদের দাবি পূরণ করা হবে ততক্ষণ এই কর্মবিরতি চলবে। এই আন্দোলনের ফলে চরম হয়রানির শিকার ছাত্র ছাত্রীরা।

টানা কর্মবিরতিতে সমস্যায় পড়েছেন শিক্ষক, শিক্ষাকর্মী ও ছাত্র ছাত্রীরা।তারা বলেছেন এই প্রথম বিশ্ববিদ্যালয় মাস পয়লাই বেতন হল না।লাগাতার আন্দোলনের ফলে সমস্যায় পড়েছে দূর-দূরান্ত থেকে আসা ছাত্রছাত্রীরা।এই ঘটনায় গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে ডেভলপমেন্ট অফিসার রাজিব পাতিতুন্ডিজানিয়েছেন লাগাতার আন্দোলনের ফলে সমস্যায় পড়তে হচ্ছে তাদের। শিক্ষা কর্মী ও শিক্ষকদের বেতন দেওয়া সম্ভব হয়নি। তিনি বলেন ফিন্যান্স অফিসার ও অস্থায়ী কর্মীদের সাহায্যে বেতন প্রদানের কাজ সম্পন্ন হয়।কিন্তু যেহেতু গত ১৪ দিন ধরে আন্দোলনে রয়েছে অস্থায়ী স্থায়ী শিক্ষা কর্মীরা সেই কারণে বেতন দেওয়া সম্ভব হয়নি।তিনি বলেন এই বিষয়টি যত তাড়াতাড়ি সমাধান হবে ততোই ভালো। তাহলে আগের গরিমায় ফিরে আসবে গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়।