মাথাভাঙ্গায় স্বাস্থ্য সাথী কার্ড থাকা সত্বেও বঞ্চিত হবার অভিযোগ রোগীদের

কোচবিহারঃ সাধারণ রোগীদের সাহায্যার্থে স্বাস্থ্য সাথী কার্ডের মাধ্যমে চিকিৎসা ব্যবস্থার সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন মাথাভাঙ্গা মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি রোগী ও তার পরিজনেরা। জানা গেছে, গত কয়েকদিন থেকে মাথাভাঙা মহাকুমার হাসপাতালে ভর্তি যাদের স্বাস্থ্য সাথী কার্ড আছে তারা কাউন্টারে গিয়ে কার্ড দেখালেও সুবিধা পাচ্ছেন না এমনটাই অভিযোগ করেন রোগীর আত্মীয় পরিজনদের।এদিন মাথাভাঙ্গার অধিবাসী পাপাই শীল নামে এক রোগীর পরিজন অভিযোগ করে জানান, মেয়েকে ভর্তি করিয়েছি, আমার পরিবারের স্বাস্থ্য সাথী কার্ড আছে, রোগী সহায়তা কেন্দ্রে গিয়ে এই কার্ডটি দেখালে তারা বলে বর্তমানে এই সুবিধা বন্ধ আছে। কারণ হিসেবে জানতে চাইলে কর্তব্যরত রোগী সহায়তা কেন্দ্রের পক্ষ থেকে জানানো হয় কয়েকদিন থেকে প্রিন্টার মেশিন খারাপ থাকার কারণে স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড গ্রহণ করা যাচ্ছে না, এনিয়ে অসুবিধা হচ্ছে।

এবিষয়ে মাথাভাঙা মহাকুমার হাসপাতাল সুপার ডক্টর দেবদ্বীপ ঘোষ জানান, বিষয়টি আমার কানে এসেছে, কি কারনে রোগীরা স্বাস্থ্য সাথী কার্ড এর সুবিধা পাচ্ছেন না বিষয়টি আমি খতিয়ে দেখছি। যদি এরকম হওয়ার কথা নয়।এবিষয়ে মাথাভাঙ্গা মহকুমা হাসপাতালের রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান, এলাকার বিধায়ক তথা মন্ত্রী বিনয় কৃষ্ণ বর্মন বলেন, স্বাস্থ্য সাথী কার্ডের সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন রোগীরা। এমনটি হওয়ার কথা নয়, তবুও কেন এমন হলো বিষয়টি খোঁজ নিয়ে দেখবো। আগামী শুক্রবার রোগী কল্যাণ সমিতির সভা ডাকা হয়েছে সেই সভায় বিস্তারিত আলোচনা করা হবে এবং রোগীরা যাতে সুবিধা থেকে বঞ্চিত না হয় তার ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।