মাত্র ৯ বছর বয়সেই গ্র্যাজুয়েট, পরবর্তী লক্ষ পিএইচডি

মাত্র ৯ বছর বয়সেই গ্রাজুয়েট, এখন লক্ষ পিএইচডি
ছবিঃ সংগৃহীত

বেলজিয়ামের লরেন্ট সাইমন্স মাত্র ৯ বছর বয়সেই চলতি বছরের ডিসেম্বর মাসে গ্রাজুয়েট হতে চলেছে। ‘ইন্দহোভেন ইউনিভার্সিটি অফ টেকনোলজি’এর ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্র লরেন্ট। স্নাতক হওয়ার পর ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়েই পিএইচডি করতে চায় লরেন্ট। সেইসঙ্গে মেডিক্যাল ডিগ্রির পড়াশোনাও করছে সে।

লরেন্টের দাদু দিদিমা তার এই আশ্চর্য ক্ষমতার কথা বলে বলেন, তার মা বাবা বিশ্বাস করেননি। তাঁদের ধারণা ছিল প্রত্যেক দাদু দিদারা তাঁদের নাতি নাতনিদের বিশেষ ভাবেন। কিন্তু পরে শিক্ষকদের কাছে একই কথা শুনে বাবা মার বিশ্বাস হয়।

লরেন্টের শিক্ষকরা বলেন, লরেন্ট স্পঞ্জের মত। যে কোনও তথ্য নিজের মত করে ধারণ করতে পারে। তাঁর মা হাসতে হাসতে বলেন, গর্ভবস্তায় তিনি অনেক মাছ খেয়েছিলেন, এরজন্য হয়ত এরকম। অন্যদের তুলনায় অনেক কম সময় পড়া বুঝে নেই লরেন্ট।

সমস্তরকম এক্সক্লুসিভ খবর পেতে লাইক করুন

লরেন্টের জন্যই কোর্সের সময়কালে কিছুটা বদল এনেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের এডুকেশন ডিরেক্টর জোয়ার্ড হুলশফের বলেন, এটা প্রথমবার নয়। এর আগেও কোর্সের সময়কাল বদলানো হয়েছিল। তিনি আরও জানান, বিশেষ ছাত্রদের জন্য সিডিউল বদলাতে থাকেন তাঁরা।

জোয়ার্ড জানান, অল্প বয়সে এত দ্রুত শেখার ক্ষমতা তিনি এর আগে কারোর মধ্যে দেখেননি। ছেলের এই বিরল প্রতিভা দেখে ছোটবেলা নষ্ট করতে চাননা বাবা মা। তাঁরা চান, বাকি ছেলেদের মত খেলাধুলা করে বড় হোক লরেন্ট।