মুখ্যমন্ত্রীর সফর বদল, উত্তরবঙ্গের বদলে বিধ্বস্ত নামখানা আর বকখালি পরিদর্শন

101

শনিবার সন্ধ্যায় বুলবুল আছড়ে পড়ল বক খালি, নামখানা ও বিভিন্ন এলাকায়। বুলবুল নিয়েই চিন্তিত গোটা রাজ্যেসহ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী স্বয়ং। কিছু দিন আগেই বুলবুল পূর্বাভাসের ফলে মুখ্যমন্ত্রী নিজেই টুইট করে সতর্কবার্তা ও দক্ষিণবঙ্গের অনেক স্কুল ছুটি ঘোষণা করেন।

এই রকম আপডেট পেতে লাইক করুন

গতকাল বুলবুল বিধ্বংসী হয়ে কাকদ্বীপ সংলগ্ন এলাকায় আছড়ে পড়ল।সমস্ত প্রকার খবর ও পরিস্থিতির যথাযথ ভাবে নিজেই নজরদারি করেন।তাই কাল গোটা রাত কাটিয়েছেন নবান্নে এবং তিনি নিজেই টুইট করে জানিয়েছেন আগামীকালই তিনি বিধ্বস্ত এলাকা গুলি পরিদর্শনে যাবেন।

রিপোর্ট জমা পড়েছে অনেক বুলবুল তান্ডবের আওতায় প্রায় ৯ টি জেলা।
রিপোর্ট অনুযায়ী ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে,

১) গাছ প্রায় ৯ হাজারের বেশি।

২) প্রায় ৩ লক্ষের বেশি লোকজন।

৩) মানুষের সাথে সাথে ৭ হাজারের বেশি বাড়ি।

৪)যোগাযোগের মাধ্যম মোবাইল টাওয়ার প্রায় ৯৫০ টিরও বেশি।

উত্তরবঙ্গের রাজার জেলা কোচবিহারে আগামী সপ্তাহে আসার কথা ছিল ওনার। বুলবুলের প্রকোপে তাই তিনি উত্তরবঙ্গ সফর বদলে আগামীকাল বকখালি রওনা করবেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ও বুলবুলের তান্ডব সামলে তিনি আগামী ১৩ নভেম্বর উত্তর ২৪ পরগনার বসিরহাট পরিদর্শনে যাবেন।

তবে আগামীকাল উড়োজাহাজ এই বিধ্বস্ত এলাকা গুলো আকাশ পথে পরিক্রমা করবেন এবং বিধ্বস্ত এলাকা গুলির মানুষদের জন্য ত্রাণ শিবির ও পুনর্বাসনের ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বকদ্বীপে বৈঠক করবেন। শনিবার সন্ধ্যায় গঙ্গাসাগর এলাকায় আছড়ে পড়ে বিধ্বংসী বুলবুল ফলে শুরু হয় তান্ডব কান্ড ‘বুলবুল’-এর দাপটে ক্ষতিগ্রস্ত ও বিপর্যস্ত বকখালি,

এছাড়াও আরও বিভিন্ন এলাকা ফ্রেজারগঞ্জ, সন্দেশখালি, ঝড়খালি, হিঙ্গলগঞ্জ, নন্দীগ্রাম, নয়াচর, খেজুরি প্রভৃতি এলাকা।এখনো পর্যন্ত ক্ষয় ক্ষতির পরিমাণ বেশ বিধ্বংসী হলেও।এই রাজ্যে বুলবুল গ্রাস করেছে ৮ জনের প্রাণ। গাছ-বাঁশ বাদেও ভেঙেছে বিদ্যুতের খুঁটিও এরফলে ঝড়খালির যোগাযোগ ব্যবস্থা হয়েছে বিচ্ছিন্ন।

ইতিমধ্যে দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে ফোন করে বিধ্বস্ত পরিস্থিতির খবর নিয়েছেন।প্রধানমন্ত্রী আ+৬

৯শ্বাস দিয়েছেন এই অবস্থায় তিনি রাজ্যের পাশে আছেন।খুব তাড়াতাড়ি ত্রাণ কাজ ও উদ্ধার কাজ করারও সু-পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী সহ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। মুখ্যমন্ত্রী কত তাড়াতাড়ি পরিদর্শনে যাচ্ছেন ওটাই দেখার।

এই রকম আপডেট পেতে লাইক করুন