ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’-এর মানে কি? কিভাবে এলো এই নাম? জানুন খুঁটিনাটি

307

ঘুর্ণিঝড় বুলবুল নিয়ে পশ্চিমবঙ্গ প্রশাসন ও বাংলাদেশের কপালে ভাঁজ পড়েছে, আবহাওয়া দপ্তর জানিয়ে দিয়েছে এই ঝড়ের গতি আগের থেকে অনেকটাই বৃদ্ধি পেয়েছে। অনেকটাই শক্তি সঞ্চয় করেছে এই ঘূর্ণিঝড়। তবে এর সাথে আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে , এই সব ঝড়ের গতিবিধি যখন তখন বদল হতে পারে, তাই এখন ঠিক ঠাক বলা সম্ভব হচ্ছে না, কোথায় গিয়ে আছড়ে পরবে এই ঝড়।

এই রকম আপডেট পেতে লাইক করুন

কিন্তু এখন প্রশ্ন হচ্ছে এই ঝড়ের নাম ‘বুলবুল’ হল কেনো বা কেই বা রাখল? এই ঝড়ের আগে যেসব ঝড় হয়েছে তার নামকরণ করেছে বিভিন্ন দেশ। যেমন ফণীর নামকরন করেছিল বাংলাদেশ। তেমনি এর নাম করেছে এমনি এক দেশ। এই ঝড়ের নাম করণ করেছে আমাদের আরেক প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তান।

ঝড়ের নামকরণ করা হয় বিভিন্ন পারিপার্শিক অবস্থার ওপরে নির্ভর করে।আর এই সব ঝড়ের প্রথম সঙ্কেত দেয় কোনও না কোনও পশু পাখীরাই। তাই এবার পাকিস্তানও সেই হিসেবেই এর নাম করণ করেছে বুলবুল।
এই নাম করন করার কিছু নিয়ম আছে, বিভিন্ন দেশ থেকে বিশেষজ্ঞদের কাছে নাম পাঠানো হয়, আর পরে সেই সব নাম নিয়ে বিশেষ বৈঠক হয়, পরে আবহাওয়া দপ্তর ভিত্তিক আঞ্চলিক কমিটি এই নাম চূড়ান্ত ভাবে ঘোষণা করে।

এর আগে বিজলির নাম রেখেছিল ভারত, নার্গিসের নার রেখেছিল পাকিস্তান,সিডারের নাম রেখেছিল ওমান, ফণীর নাম রেখেছিল বাংলাদেশ। আগামী দুটো ঝড়ের নাম পবন ও আফমানের নাম করণ করেছে শ্রীলঙ্কা ও থাইল্যান্ড। তেমনই এবার আবার বুলবুলের নামকরণ করেছে পাকিস্তান।

এই রকম আপডেট পেতে লাইক করুন