Bulbul update: ভয়ংকর রুপ ধারন করছে ‘বুলবুল’, খুলে দেওয়া হল কন্ট্রোল রুম

380

বুলবুল আগের থেকে অনেক বেশি শক্তি ধারণ করেছে। এবার সেই ঘূর্ণিঝড় পশ্চিম বঙ্গের দিকেই ধেয়ে আসছে। আর তার জন্য এবার প্রশাসন প্রস্তুত, যেভাবেই হোক এর মোকাবেল করতে হবে, এর জন্য বিভিন্ন জায়গায় সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে।

এই রকম আপডেট পেতে লাইক করুন

খোলা হয়েছে কন্ট্রোল রুম। এর সাথে মোকাবেলা দপ্তরকে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে, তারা যেনো যেকোনো পরিস্থিতিতেই সাধারণ মানুষের পাশে এসে দাঁড়ায়। এর থেকে বড় একটা ব্যাপার হচ্ছে যারা উপকুল অঞ্চলের কাছে থাকে তাদের নিরাপদ স্থানে সড়িয়ে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এদিকে এই বুলবুলের হাত থেকে কিভাবে বাচা যায়, কিভাবে এর মোকাবেলা করা যায়, তার জন্য জেলাশাসক ও আলিপুরের আবহাওয়া বিদদের সাথে বৈঠক হয়েছে, এর জন্য বিশেষ করে ব্লু প্রিন্ট তৈরীর ব্যবস্থা করা হচ্ছে, এর সাহায্যেই বুলবুলের মোকাবেলা করা যাবে। সবা জায়গায় ত্রাণ, উদ্দারকরার সামগ্রী নিয়ে তৈরী থাকতে বলা হয়েছে।

প্রশাসনের তরফ থেকে বলা হয়েছে মৎস্যজীবীরা যেনো সমুদ্রে না যায়, আর যারা এখনও সমুদ্রে আছে তাদের ফিরিয়ে আনা হবে, এদিকে দীঘার উপকুলের সব জায়গায় নজরদারী চালাচ্ছে প্রশাসন, পর্যটকদের ওপর নজরদাড়ি রাখা হয়েছে, তারা যেনো সমুদ্রে না নামে এর কথাও আগের থেকে জানানো হয়েছে।

আবহাওয় দপ্তর সুত্রে জানা গেছে এই ঘুর্ণিঝো রবিবার ভোরেই সাগরদ্বীপে আছড়ে পরবে। কিন্তু তার সাথে তারা এই কথাও বলেছে এই সব ঝড়ে গতি প্রকৃতি বোঝা মুশকিল, যখন তখন নিজের গতিপথের পরিবর্তন ঘটাতে সক্ষম। তাই এখনও বোঝা যাচ্ছে না শেষ্ মেষ কো থায় গিয়ে আছেড়ে পরবে।

সুন্দরবন, ,দিঘা এই সব জায়গায় মাইকিং করা হচ্ছে এবং মানুষকে সচেতন করা হচ্ছে। আর উপকুল অঞ্চলে আন ডি এফ কে নজরদারী চালাতে বলা হয়েছে, তারা সাধারণ মানুষদের নিরাপদ স্থানে নিয়ে যাওয়ার কাজ চালাচ্ছে। এদের সাথে সব কাজের ওপরে নজর দারি রাখছে এডিএম। শনিবার থেকেই এর তান্ডব শুরু হওয়ার কথা, এখন আগামীকাল থেকেই সব মোকাবেলা দপ্তরকে সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছে প্রশাসন।

এই রকম আপডেট পেতে লাইক করুন