দীপঙ্কর খুনের ঘটনায় কোচবিহারে বনধ যুব বিজেপির যুব মোর্চার

113
দীপঙ্কর খুনের ঘটনায় কোচবিহারে বনধ যুব বিজেপির যুব মোর্চার

কোচবিহার: বিজেপির যুব মোর্চার কোচবিহার জেলা সহ-সভাপতি দীপঙ্কর দেবকে পরিকল্পিতভাবে খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ তুলে দোষীদের সনাক্তকরণ করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে খাগড়াবাড়ি অঞ্চলে বনধ পালন করা হচ্ছে। মঙ্গলবার সকাল থেকেই ২৪ ঘন্টা এই বন্ধের ফলে প্রভাব পড়ে ব্যাপক। খোলেনি কোন দোকানপাট। বন্ধের ফলে এলাকার বিভিন্ন স্কুল বন্ধ থাকে।

যুব নেতাকে খুনের অভিযোগে যুব সংগঠনের ডাকা বন্ধের ফলে এলাকায় শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে সকাল থেকেই পুলিশি নজরদারি রয়েছে যথেষ্ট। পাশাপাশি বিজেপি দলের পক্ষ থেকেও সুকুমার রায়ের নেতৃত্বে কর্মী-সমর্থকরা এলাকায় মিছিল করে খুনিদের অবিলম্বে শনাক্ত করে শাস্তিমূলক শাস্তির দাবিতে সরব হয়।

এদিন খাগড়াবাড়ি চৌপথি সহ বিভিন্ন এলাকায় দোকানপাট বন্ধ থাকার পাশাপাশি সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে। বনধ সমর্থকদের দাবি যুব মোর্চার তরুণ এই নেতা দীপঙ্কর দেবের মৃত্যু কোনো দুর্ঘটনা নয় পরিকল্পিতভাবে তাকে খুন করা হয়েছে। খাগড়াবাড়িতে জমি মাফিয়াদের বিরুদ্ধে যে গণ আন্দোলন গড়ে তুলেছিল দীপঙ্কর তাতেই ভয় পেয়ে তার মুখ বন্ধ করার জন্য তাকে খুন করা হয়েছে বলে দাবি বনধ সমর্থকদের।

তাই তারা এই খুনের সিবিআই তদন্ত চেয়ে অবিলম্বে দোষীদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবি করেছে।
উল্লেখ্য, শারদীয়া দুর্গাপুজোয় অষ্টমীর রাতে পথদুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয় যুব মোর্চার জেলা নেতা তথা জমি আন্দোলনের অন্যতম নেতা দীপঙ্কর দেব। ঘটনার পর তাকে কুচবিহার একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে আনা হলেও অবস্থা যে ধীরে অবনতি হওয়ায় তাকে শিলিগুড়িতে রেফার করা হয়।

প্রায় এক মাস সেখানে চিকিৎসাধীন থাকার পর শনিবার গভীর রাতে তার মৃত্যু হয়। ঘটনার প্রতিবাদে যুব সংগঠনের পক্ষ থেকে এলাকায় বন্ধ পালনের মধ্য দিয়ে অভিযুক্তদের সনাক্তকরণ করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানানো হয়। অবিলম্বে অভিযুক্তদের সনাক্তকরণ করে গ্রেফতার করা না হলে যুব সংগঠনের পক্ষ থেকে আগামীতে বৃহত্তর আন্দোলনের হুমকি দেয়া হয়।

বিজেপির যুব মোর্চার কোচবিহার জেলা সভাপতি সমীর রায় বলেন, দীপঙ্কর ছিল জমি আন্দোলনের অন্যতম নেতা। তাকে কৌশলে দুর্ঘটনার নামে খুন করে জমি মাফিয়ারা নিজেদের আড়াল করার চেষ্টা করছে। এই ঘটনার পেছনে শাসক বেশ কয়েকজন নেতা জড়িত রয়েছে বলেও তাদের অনুমান। তৃণমূলের কোচবিহার জেলা কার্যকারী সভাপতি প্রাক্তন সাংসদ পার্থপ্রতিম রায় বলেন, দীপঙ্কর দেবের মৃত্যু একটি দুর্ঘটনা। এর সাথে দলের কোন সম্পর্ক নেই। পুলিশ তদন্ত করলেই সব পরিষ্কার হয়ে যাবে।

এই রকম আপডেট পেতে লাইক করুন