আজ জগদ্ধাত্রী পুজোর মহাঅষ্টমী, পুজো নিয়ে শাস্ত্র কী বলছে দেখুন

জগদ্ধাত্রী পুজো নিয়ে শাস্ত্র কী বলছে দেখুন

চলতি বছরের জগদ্ধাত্রী পূজার অষ্টমী দুদিন ধরে পালিত হচ্ছে, সোমবার এবং মঙ্গলবার৷ দুর্গাপূজার প্রায় এক মাস পর চন্দননগরে মহা ধুমধাম করে জগদ্ধাত্রী পুজো পালিত হয়৷ কার্তিক মাসের শুক্লপক্ষের তিথিতে জগদ্ধাত্রী পুজো করা হয়৷

শাস্ত্র বলছে জগদ্ধাত্রী দেবী যাঁকে রক্ষা করেন তাঁর পতন নেই বিনা শুনেই, আসলে জগদ্ধাত্রী হলেন জগত্ সভ্যতার পালিকা শক্তি, তিনি দেবী দুর্গার আর এক রূপ৷ যদিও দেবী দুর্গার মতো দশভুজা নন কারণ তাঁর চারটি হাত রয়েছে৷

তিনি এক সঙ্গে ইন্দ্রাদি দেবগণের অহঙ্কার চূর্ণ করেছেন৷ তাই কাহিনী অনুযায়ী, দশপ্রহরণধারিনী মহামায়ার হাতে মহিষাসুর বধের পর যখন দেবতারা খুব অহঙ্কারী হয়ে পড়েছিলেন তখন তাঁরা তাঁদের অস্ত্রের জন্যই এত অসাধ্য সাধন হয়েছে বলে মহামায়ার শক্তিকে অস্বীকার করতে শুরু করেছিলেন,

তাই তো সেই অজ্ঞতাকে ভুল প্রমাণ করতে তিন কোটি সূর্যের সমষ্টিগত দীপ্তি নিয়ে আবির্ভূত হয়েছিলেন দেবী জগদ্ধাত্রী৷ ঠাকুর রামকৃষ্ণ বলেছিলেন যিনি জগতকে ধরে আছেন তিনিই হলেন জগদ্ধাত্রী৷ যদিও হুগলি জেলার চন্দননগর ছাড়াও ভদ্রেশ্বর এবং উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার কৃষ্ণনগরে জগদ্ধাত্রী পূজা পালিত হয়৷