এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে মারার অভিযোগ উঠল ৭ জনের বিরুদ্ধে

82

মালদা, ৪ নভেম্বর : এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে মারার অভিযোগ উঠল ৭ জনের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে, শনিবার রাতে মোথাবাড়ি থানার পঞ্চনন্দপুর ২ নং গ্রাম পঞ্চায়েতের গোলকটোলা গ্রামে। রবিবার রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে মৃত্যু হয় ওই ব্যক্তির। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত ব্যক্তির নাম অজয় কুমার দাস (৪৬)। বাড়ি গোলকটোলা গ্রামে। অভিযুক্ত চিরঞ্জিত মন্ডল সহ ৭ জন।জানা গিয়েছে, অজয় কুমার দাস শনিবার রাতে তার একটি গরু রাস্তার ধারে বাঁশের খুঁটিতে বাঁধছিলেন। অভিযোগ, সেই সময় মদ্যপ অবস্থায় চিরঞ্জিত মন্ডল ওই রাস্তা দিয়ে মোটর বাইকে চেপে বাড়ি ফিরছিলেন। রাস্তার ধারে গরু বাঁধাকে কেন্দ্র করে তাদের দুইজনের মধ্যে বচসা শুরু হয়। বচসার জেরে গ্রামের ৬ জনকে নিয়ে অজয় এর উপর কিল-ঘুষি ও ইট দিয়ে প্রহার করে চিরঞ্জিত মন্ডল বলে অভিযোগ।এই ঘটনায় গুরুতর আহত অবস্থায় প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে এবং পরে মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয় অজয়কে। রবিবার রাতে তার মৃত্যু হয়। অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ। আমি তোর ভাই দশরথ দাস জানিয়েছেন, শনিবার রাত্রি সাড়ে নয়টা নাগাদ, তার দাদা একটি গরু রাস্তার ধারে খুঁটিতে বাঁধ ছিলেন।

সেই সময় চিরঞ্জিত মন্ডল মোটর বাইকে চেপে বাড়ি ফিরছিলেন।রাস্তার ধারে গরু বাধাকে কেন্দ্র করে তার দাদা এবং চিরঞ্জিত মন্ডল এর মধ্যে বচসা শুরু হয়। এই বচসার জেরে চিরঞ্জিত মন্ডল গ্রামের আরো কয়েকজনকে নিয়ে গণপ্রহার শুরু করে তার দাদার উপর। কিল-ঘুষি-লাথি ও ইট দিয়ে তার দাদাকে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ তুলেছেন তিনি। এরপর আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতাল এবং পরে তাকে স্থানান্তর করা হয় মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে। সেখানে চিকিৎসা চলাকালীন রবিবার রাতে তার মৃত্যু হয়। চিরঞ্জিত মন্ডল সহ ৭জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছেন তিনি।পুলিশ মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়। ঘটনার তদন্তে নেমে খুনের ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে ৩ জনকে গ্রেপ্তার করে মোথাবাড়ি থানার পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে ধৃতদের নাম, ভূদেব মন্ডল (৪৩), বাসুদেব মন্ডল (৩৭) এবং কাজল মন্ডল (৪২)। মূল অভিযুক্ত পলাতক।ধৃতদের সোমবার জেলা আদালতে তোলা হয়।

এই রকম আপডেট পেতে লাইক করুন