গলায় দড়ির ফাঁস নিয়ে ধীরে ধীরে এগিয়ে আসছে ছায়ামূর্তি, তারপর যা হল

60
গলায় দড়ির ফাঁস নিয়ে ধীরে ধীরে এগিয়ে আসছে ছায়ামূর্তি
প্রতীক ছবি

দুর্গাপূজার ঠিক পরে ৪ বন্ধু আলের মধ্যে বসে গল্প করছিল। ঠিক সেই সময় গলায় দড়ির ফাঁস নিয়ে এগিয়ে আসছিল এক ছায়ামূর্তি। কিন্তু সামনে আসতেই উধাও। কখনও মাঠের উপর দিয়ে চলছে, কখনওবা শ্মশানের পাশ দিয়ে।

বাজারে অনেক ধার ছিল সৌমেন মন্ডল নামে এক ব্যক্তির। ভুগছিলেন মানসিক চাপে। বিয়ের সম্পর্কও ভেঙে গিয়েছে তাঁর। অনেকের কাছে সাহায্যের জন্য হাত পেয়েছিলেন, কিন্তু কেউ সাহায্য করার জন্য এগিয়ে আসেনি।

শেষমেশ বাড়ির তেঁতুল গাছে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে সে। তারপর থেকেই প্রবল আতঙ্কে রয়েছে জীবনতলার বাসিন্দারা। সৌমেন মন্ডলের আত্মা নাকি গলায় দড়ি দিয়ে এখনও ঘুরে বেড়ায়। তাঁকে নাকি দেখা যায় মাঝে মধ্যেই।

ঝাপসা, ঘোলাটে চোখের দিকে তাকালেই নাকি বুক কেঁপে ওঠে। সেখানকার এক স্থানীয় দাবি করেছেন, এই কাজ যে সৌমেনেরই, তাঁর প্রমান নাকি তাঁরা পেয়েছিলেন ভুত চতুর্দশীর দিন। সৌমেনের এক বন্ধু বলেছেন, সৌমেন নাকি তাদের বাম ধরে ডেকেছে।

তাঁদের দাবি, সৌমেনের গলা খুব চেনা, তাঁর গলা কেনই বা চিনবেননা তাঁরা। মহালয়ার ৪ দিন আগে ঘটে এই ঘটনাটি। তারপর থেকে দু’চোখের পাতা এক করতে পারেননি গ্রামের লোক।

এই রকম আপডেট পেতে লাইক করুন