ডিমের পরিবর্তে ডিমের মতোই পুষ্টি আপনার সন্তানকে জোগাবে যে সমস্ত খাবার

316
ডিমের পরিবর্তে ডিমের মতোই পুষ্টি আপনার সন্তানকে জোগাবে যে সমস্ত খাবার

ডিমের মধ্যে রয়েছে শরীরের প্রয়োজনীয় নানা পুষ্টিকর উপাদান, যা আপনার সন্তানের সঠিক বিকাশে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। কিন্তু সন্তান ডিম দেখলেই নাক সিঁটকোয় বা একটা ডিমের মাশুল দিতে হয় অ্যালার্জীর ওষুধ খেয়ে? আর তার জন্যই অভিভাবক হিসেবে আপনার ধ্যান আকর্ষণ করছে বাজারের চলতি ফুড সাপ্লিমেন্ট, প্রোটিন শেক এবং সন্তানের পুষ্টির কথা মাথায় রেখেই ঝোঁক বাড়ছে সেদিকে সন্তানের ক্ষতির কথা না ভেবেই।

ডিমে পাওয়া যায় 60-70% ক্যালোরি, তাই তো সুষম খাদ্যের তালিকায় তার জায়গাও রয়েছে। তবে এখন ডিমের বিকল্প হিসেবে সন্তানের হাতে তুলে দিন এইসমস্ত খাবার:

টকদই- চিন্তার ভাঁজ দূরে সরিয়ে সন্তানের রোজকার খাবার পাতে রাখুন টকদই। স্যালাডের সাথে, রায়তা হিসেবে, ওটসের সাথে দিন আপনার শিশুকে টকদই। লিভারে প্রোবায়োটিক উপাদানের জোগান বাড়ানোর পাশাপাশি ডিমের তুল্য ক্যালসিয়ামের অনেকটাই পূরণ করবে টকদই।

সয়াবিন: উদ্ভিজ্জ প্রোটিনের প্রধান উৎস সয়াবিন। রোজ সন্তানের খাবার পাতে রাখুন সয়াবিন, তবে খেয়াল রাখতে হবে তা যেন প্রক্রিয়াজাত খাবার না হয়। সয়াবিন মেটাবে ডিমের থেকে প্রাপ্ত প্রোটিনের ঘাটতি।

পনির: ডিমের পরিবর্ত হিসেবে পনিরের ব্যবহার যে কোনো বেকড খাবারে দেখা যায়। ছানার তরকারির পাশাপাশি স্যালাডেও ব্যবহার করতে পারেন ছোট ছোট পনিরের টুকরো। রুটির ভেতর ছানার পুর ভরে একটু মুখরোচক বানিয়ে সন্তানের টিফিনবক্সে ভরে দিতে পারেন অনেকটা পুষ্টি।

কলা: আজকাল অনেক শিশুরাই যে কোনো মরসুমি ফলের প্রতি উদাসীন। কিন্তু ফলকে একটু মুখরোচক করে সন্তানের সামনে পরিবেশন করুন বিভিন্ন মরসুমি ফল দিয়ে ফ্রুট স্যালাড বানিয়ে। ফলের ক্ষেত্রে কলার প্রতি বিশেষ নজর দিন। কারণ কলাতে রয়েছে প্রচুর পটাসিয়াম যা শিশুর সঠিক বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

এই রকম আপডেট পেতে লাইক করুন