কালীপুজা নিয়ে পুলিশদের সামনেই বিশেষ দাবি উদ্যোক্তাদের

55

এবার দিতে হবে কালিপুজোতেও অনুদান, দুর্গাপুজাতেও যেভাবে পুজা কমিটিদের অনুদান দেওয়া হয়েছিল ঠিক সেভাবেই এবার কালিপুজা কমিটিদের দিতে হবে সেই অনুদান। তাদের বিদ্যুতের বিলে ছাড় , ও সরকারের কাছ থেকে অনুদানের দাবিতে তারা সরব হয়েছেন, আর তারা পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মা-সহ অন্যান্য আইপিএস কর্তা এবং সিইএসসির পদস্থ ইঞ্জিনিয়ারদের সামনেই এই দাবি রেখেছে।

এই রকম আপডেট পেতে লাইক করুন

এবার পুলিশের তরফ থেকে জানানো হয় , এবারকার কালিপুজা পড়েছে রবিবারে, আর তার জন্য তার পরের দিনই বিসর্জন দেওয়া যাবে , কিন্তু তারপরে দিনই ছট পুজা আর তার জন্য সেদিন দেওয়া যাবে না বিসর্জন, এইবার শহরে পুজার সংখ্যা ৩২৫৬ টি। আমরা আসান আপের মাধ্যমে পুজোগুলোর অনুমদনের কাজ সাড়ছি। আশা করি বৃহস্পতিবারের মধ্যে সব কাজ শেষ হয়ে যাবে।

তিনি আরও বলেন সুপ্রিম কোর্ট ও হাই কোর্টের নিয়ম মেনেই পুজো করতে হবে,মানুষেড় নিরাপত্তার জন্যও মন্ডপের প্রবেশ পথ ও বাহির পথ আইন মেনেই করতে হবে, ৯০ ডেসিবেলের মধ্যে শব্দ বাজি ফাটাতে হবে।

এর পরেই বিভিন্ন পুজা কমিটি বলে, দুর্গাপুজার মতো আমাদের সরকারী অনুদোন দিতে হবে, সেই সময় সবাই পেয়েছে কিন্তু আমরা পাবো না কেন, এই কালিপুজা কি পুজা না। দুর্গা ও কালি পুজা বাঙ্গালীর প্রাণের উৎসব। তাই আমরা পুলিশ কমিশনারের মাধ্যমে মুখ্যমন্ত্রিড় কাছে এই দাবি জানাতে চাই।

এর সাথে তারা আরও বলে, দুর্গাপুজার পরে কালিপুজা এর জন্যও আমরা বেশি স্পন্সার পাই না, তাছাড়া এখনকার বাজার মুল্য হিসেবে আমাদের পুজোড় খরচ অনেকটাই বেশী। তাই আমরা ১০,০০০ টাক দাবি করছি, দুর্গাপুজাতে সব ক্লাব পেয়েছে তাহলে আমরা বঞ্চিত থাকব কেনো।, তাই আমাদের দাবি মেনে নিতে হবে।

এই রকম আপডেট পেতে লাইক করুন