ইস্তফার পথে অমিত শাহ, শোরগোল দেশ জুড়ে

44

তিনি একাধারে যেমন মন্ত্রীর এক বিশেষ পদে আছেন তেমনি দলের সভাপতি পদের মূল চাবি কাঠিও তার হাতে। কিন্তু এখন তিনি তার দায়ভার থেকে সড়ে দাড়াতে চায়। তিনি এতদিন দায়িত্ব নিয়্ব এসেছেন এই দুয়ের, তবে এখন তিনি এর দায়িত্ব অন্য কারো কাধে দিতে চায়।

তিনি আগেই ঘোষণা করেছিল। তবে বোঝা যায় নি এটা কবে হবে, কিন্তু এখন তা পরিষ্কার। তিনি বলেছেন দল এক নতুন সভাপতি পেতে চলেছে, কিন্তু সেটা কে হবে তা স্পষ্ট জানা যায় নি। চলতি বছরের সাংগঠনিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলেই দলের জন্য নতু পথ তৈরী করবেন তিনি। তিনি জানিয়েছেন ডিসেম্বরের মধ্যেই এই নতুন সভাপতিকে দল পাবে।

তিনি একটি সনবাদ মাধ্যমকে জানায়, এমন না যে আমি এই পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর পরেও দলের সুপার পাওয়ার হিসেবে কাজ করব, আমি যখন প্রথম এই পদের জন্য নির্বাচিত হই তখন এমন ধরনের কথা হয়েছিল।

এটা অন্য কোনো দল না যে পেছন থেকে কেউ চালাবে, আমরা এক ব্যাক্তি পদ অনুসরণ করে চলি, নির্বাচনের পর সভাপতির জন্য বিশিষ্ট কাওকে বেছে নেওয়া হবে। তবে তা ডিসেম্বরের মধ্যেই করা হবে বলে জানিয়েছে তিনি।

এই রকম আপডেট পেতে লাইক করুন