সরকারি হাসপাতাল নিয়ে বিরাট বড় পদক্ষেপ মমতার, আর যেতে হবে না নার্সিং হোমে

62

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যের দায়িত্বে আসার পর থেকে বিশেষ করে স্বাস্থ্য পরিষেবা উন্নয়নের দিকে নজর রেখেছেন তাই তো রাজ্যের সরকারি হাসপাতালগুলির হাল বদল হয়েছে। রোগীর পরিষেবা যেমন উন্নত তেমনই রোগী পরিবারের আত্মীয়দের থাকার জন্য ওয়েটিং রুম টিও বেশ ঝাঁ চকচকে তবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে এবার সরকারি হাসপাতালগুলিতে তৈরি হয়েছে বিলাসবহুল কেবিন।

যেখানে ন্যূনতম টাকা দিয়ে রোগীরা বেশ সাত ছন্দেই থাকতে পারবেন। যদিও মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে রাজ্যের সুপার স্পেশালিটি হসপিটাল থেকে সমস্ত সরকারি হসপিটালে বিলাসবহুল কেবিন তৈরির কাজ ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে কিন্তু সিলমোহর না পাওয়ায় এত দিন অবধি পরিষেবা আটকে ছিল তবে এ বার নির্দিষ্ট গাইডলাইন মেনেই বেঁধে দেওয়া হলেও খরচ।

হাসপাতালের বিলাসবহুল কেবিনের জন্য খরচ বেঁধে দিল রাজ্য সরকারের স্বাস্থ্য দফতর, তাই তো হাসপাতালগুলিতে কেবিনের ভাড়া কত নেওয়া হবে এবং সেই সমস্যা বিলাসবহুল কেবিনে কী কী পরিষেবা মিলবে সেই সংক্রান্ত একটি নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে।

জানা গিয়েছে জেলার হাসপাতালগুলিতে সাড়ে সাত শ হাজার এবং দেড় হাজার টাকায় হাসপাতালের কেবিন গুলির ভাড়া নেওয়া হবে, জেলার মেডিক্যাল কলেজগুলি বেড ভাড়া হাজার দেড় হাজার দুই হাজার টাকা করে এবং কলকাতা শহরের মেডিক্যাল কলেজগুলির ভাড়া লাগবে দুই হাজার আড়াই হাজার চার হাজার টাকা।

এই রকম আপডেট পেতে লাইক করুন