ছোটবেলার ক্ষুদার্থ রোনাল্ডোকে খেতে দিতেন এই মহিলারা, আজও তাদের খোঁজে রোনাল্ডো

ছোটবেলার ক্ষুদার্থ রোনাল্ডোকে খেতে দিতেন এই মহিলারা

রোনাল্ডোর ছোটবেলা কেটেছিল দারিদ্রতার মধ্যে। দারিদ্রতার জন্য ঠিকঠাক খাবার জুটতো না তাঁর। সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে জানান, তাঁর জীবনে হারিয়ে যাওয়া তিনজন ব্যাক্তিকে খুঁজে পেতে চান তিনি। এই তিনজনের মধ্যে একজনকে খুঁজে পাওয়া গেছে। ছোটবেলায় ক্ষুদার্থ রোনাল্ডোকে তিনি হ্যামবার্গার দিতেন।

রোনাল্ডো বলেন, তাঁর বয়স যখন ১১ বা ১২ বছর, তখন তাঁদের আর্থিক অবস্থা ভালো ছিলনা। পেট ভরে খেতেও পারতেননা তিনি। সেইসময় তিনি খেলার জন্য লিসবনে থাকতেন।

লিসবন স্টেডিয়ামের পাশে একটি ম্যাকডোনাল্ডসের দোকান ছিল। তাঁর বন্ধুরা প্রতিদিন রাতে দোকানের পিছনের দরজায় গিয়ে নক করতেন কোনও বার্গার পরে আছে কি না জানার জন্য। তিনি আরও বলেন, এডনা এবং আরও দু’জন মহিলা খুবই ভালো ছিলেন।

কিন্তু এখনও খুঁজে পাননি তাঁদের। অনেক চেষ্টার পরেও তাঁদের খুঁজে পাওয়া যায়নি। দোকানটা এখন বন্ধ। তিনি আরও বলেন, এই সাক্ষাৎকারের মাধ্যমে যদি তাঁদের খুঁজে পান, তিনি খুব খুশি হবেন এবং ডিনারে আমন্ত্রণ জানাবেন তাঁদের।

রোনাল্ডোর এই সাক্ষাৎকারের পর একজন মহিলার খোঁজ পাওয়া যায়। তাঁর নাম পাওলা লেকা। তিনি বলেন, রোনাল্ডো এবং তাঁর বন্ধুরা প্রতিদিন দোকানের সামনে এসে দাঁড়িয়ে থাকত।

ম্যানেজারের অনুমতি নিয়ে বেঁচে যাওয়া বার্গার দিয়ে দিতেন তাঁদের। তাঁর ছেলে এই কথা বিশ্বাস করেননা। কিন্ত তাঁর স্বামী অনেকদিন রোনাল্ডো এবং তাঁর বন্ধুদের দোকানে আসতে দেখেছিলেন। কিন্তু জানা যায়, রোনাল্ডো যে তিনজন মহিলাকে খুঁজছে, পাওলা লেকা তাঁদের মধ্যে কেউ নন।