আলিপুরদুয়ারে ভাইকে হত্যার দায়ে পুলিশকর্মীকে সাত দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ বিচারকের!

554
আলিপুরদুয়ারে ভাইকে হত্যার দায়ে পুলিশকর্মীকে সাত দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ বিচারকের

আলিপুরদুয়ার:- যুবক খুনের ঘটনায় গ্রেফতার মা ও দাদাকে সাত দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দিলেন বিচারক। একই সঙ্গে গ্রেফতার গাড়ির চালক রঞ্জিত রায়েরও সাত দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। যুবক খুনের ঘটনায় গ্রেফতার ৩ জনকে রবিবার আলিপুরদুয়ারে বিশেষ আদালতে তোলা হয়। বিচারক গ্রেফতার ৩ জনকেই সাত দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন। সেই সময় গাড়ির চালককেও গ্রেফতার করা হয়।

উল্লেখ্য, শনিবার সন্ধ্যায় যুবক খুনের ঘটনায় যুবকের মা, দাদা ও একজন গাড়ির চালককে গ্রেফতার করে ফালাকাটা থানার পুলিশ। মাদারিহাট থানার পশ্চিম খয়েরবাড়ি গ্রামের বাসিন্দা (২৬) বছরের যুবক বরুন রায়কে মা ও দাদা মিলে খুন করা হয় বলে অভিযোগ ওঠে। খুনের পর মৃতদেহ ট্রাংকে ভরে ট্রেনে করে বাইরে লোপাটের চেষ্টা করলে ফালাকাটা স্টেশনে আর পি এফের নজরে পড়ে যায়। শুক্রবার রাত সাড়ে এগারটা নাগাদ দরজা লাগানোর কাঠের ডাসা দিয়ে বাড়িতেই পিটিয়ে খুন করা হয় ওই যুবককে বলে জানতে পেরেছে পুলিশ।

শনিবার দুপুরে মৃতদেহ লোপাটের চেষ্টা করে মা ও ছেলে । ফালাকাটা স্টেশনের সামনে একটি মারুতি ভ্যান গাড়িতে লোহার ট্রাংক গাড়িতে রাখা অবস্থায় নজরে পরে আর পি এফের। খবর দেওয়া হয় ফালাকাটা থানাতে। পুলিশ গিয়ে জানতে পারে ট্রাংকের ভেতরে মৃতদেহ রয়েছে। জানা গিয়েছে, ওই মারুতি চালক পশ্চিম খয়েরবাড়ি গ্রামের বাসিন্দা। এই ঘটনায় গোটা জেলায় শোরগোল পড়ে গেছে। এদিকে এই ঘটনার পর মা ও দাদা দুজনেই দাবি করেছেন তারা এই খুনের ঘটনা ঘটিয়েছেন।