ফের এয়ারস্ট্রাইক আফগানিস্তানে, মৃত অন্তত ৩০

প্রতীক ছবি

আফগানিস্তান তালিবানদের উপর একের পর এক এয়ার স্ট্রাইকের আঘাত হানছে সেদেশের বায়ুসেনা বিভাগ। বৃহস্পতিবারের পর এবার শনিবারেও আফগানিস্তানের আকাশে চলল এয়ার স্ট্রাইক। যার ফলে তালেবান বিদ্রোহীদের ৩০ জন সদস্যের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে। তবে তালিবানদের দাবি, এই ঘটনায় তাদের কোন সঙ্গীর মৃত্যু হয়নি। তাদের দাবি অনুযায়ী, এয়ার স্ট্রাইকের ফলে প্রাণ হারিয়েছেন সাধারণ মানুষ, যাদের মধ্যে বেশ কয়েকজন মহিলা এবং শিশু ছিল।

আফগানিস্তানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফ থেকে একটি টুইট বার্তায় জানানো হয়, শনিবার সকালে আফগানিস্তানের কুন্দুজ প্রদেশের খান আবাদ জেলায় তালিবান ঘাঁটিগুলিতে আক্রমণ করে আফগানিস্তানের সেনাবাহিনী। তালিবান বিদ্রোহীদের সাথে লড়াইয়ে আফগানিস্তানের সেনাবাহিনীর দুইজন কমান্ডার নিহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। এই দাবির পরিপ্রেক্ষিতে তালিবানদের দাবি, আফগানিস্তানের সেনাবাহিনীর আক্রমনে এদিন ২৩ জন সাধারণ মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

উল্লেখ্য, স্থানীয় এক হাসপাতালের চিকিৎসক মহম্মদ নায়িম মঙ্গলও তালিবানদের দাবিকে সমর্থন করেছেন। তিনি জানান, এদিন সংঘাতের পর তিন জন নিহত এবং তিনজন আহত সাধারণ মানুষকে তার হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। তালিবানদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে আফগানিস্তানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, এই ঘটনার পুর্নতদন্ত করা হবে।

সরকারি সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার আফগানিস্তানের তিনটি প্রদেশে সারারাত ধরে তালিবানদের সাথে সেনাবাহিনীর সংঘাত চলে। এই সংঘর্ষের ফলে ঐদিন ৩১ জন তালিবান সদস্য সহ আফগানিস্তানের ১৯ জন নিরাপত্তা রক্ষী প্রাণ হারান। তবে এই তথ্য মানতে নারাজ তালিবান সংগঠন। ইতিমধ্যেই আফগানিস্তানের কাতারে সরকারের সাথে শান্তি প্রক্রিয়া সংক্রান্ত আলোচনায় বসেছে বিদ্রোহী তালিবান সংগঠনের সদস্যরা।