আর দে’খা যা’বে না ইন্ডিয়ান আইডলের ম’ঞ্চে, স’ঞ্চা’ল’না ছা’ড়’ছে’ন আদিত্য নারায়ণ

গান শুনতে কে না ভালোবাসে। প্রতি মুহূর্তের সঙ্গেই গান আমাদের জীবনের সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। তবে ব্যাতিক্রমও রয়েছে অন্যান্য সব কিছুর মতো এই বিষয়েও। গান কে কেন্দ্র করে অনেক Reality Show-ও চলছে। এমনি এক show ইন্ডিয়ান আইডল, যার সিজন মানেই একগুচ্ছ মন ভালো করা গান, নতুন নতুন প্রতিযোগী, বিচারকদের গ্ল্যামার আর সবচেয়ে বেশি নজরকাড়া আদিত্য নারায়নের সঞ্চালনা। কিন্তু শোনা যাচ্ছে, ২০২২ থেকে আদিত্য নারায়ণকে আর দেখা যাবে না অনুষ্ঠান সঞ্চালক হিসেবে। ইন্ডিয়ান আইডল শোতে এটাই তার শেষ সঞ্চালনা।

তাহলে কী করতে চলেছেন আদিত্য? গত বছরেই তিনি বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন দীর্ঘ দশ বছরের পুরনো বান্ধবী শ্বেতার সাথে। বাবা উদিত নারায়নের জন্মদিনের দিনই দুই পরিবারের ঘনিষ্ঠদের সাক্ষী রেখে বিয়ে করেছেন তিনি। যদিও ফ্যামিলি প্ল্যানিং কেউই করেননি। তবে নতুন কোনো কাজের উদ্যোগ নিতে চলেছেন আদিত্য, যদিও তা এখনও প্রকাশ পায়নি। সঞ্চালনা ছাড়ার পর কি কাজ করবেন আদিত্য – এই বিষয়ে কিছুই বলেননি। । তবে আর সঞ্চালনা করবেন না। তাহলে কি ইন্ডিয়ান আইডলে কোনো সমস্যার সম্মুখীন হলেন? এই নিয়ে তার অনুরাগী দের মধ্যে দেখা গেছে তীব্র কৌতূহল।

টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করে মুম্বইতে যথেষ্ট সফলতা অর্জন করেছেন। নিজের বাড়ি, গাড়ি এবং স্বাচ্ছন্দ্যের জীবন যাপন করছেন। সূত্রের খবর পার্সোনাল ঋণও শোধ হয়ে গেছে তাঁর। আদিত্য বহু বছর ধরে ইন্ডাস্ট্রিতে আছেন। সা রে গা মা পা চ্যালেঞ্জ ২০০৭ দিয়ে টেলিভিশনে সঞ্চালনার কেরিয়ার শুরু করেছিলেন তিনি। ইন্ডিয়ান আইডল-এর পর পর দুটো সিজন তিনি সঞ্চালনা করেন। এবারে হয়তো সঞ্চালকের ভূমিকায় ইতি টানার সময় এসেছে তাঁর।

এদিন এক সাক্ষাৎকারে আদিত্য বলেন, “ভারতীয় টেলিভিশনে সঞ্চালক হিসেবে আমার শেষ বছর ২০২২। তারপর আর সঞ্চালনার কাজ করা সম্ভব হবে না। আরও বড় কিছু পরিকল্পনা রয়েছে। প্রাথমিক অঙ্গীকারগুলো আগে সম্পূর্ণ করতে হবে। একসঙ্গে অনেকগুলো কাজ করতে ভাল লাগে। কিন্তু সেক্ষেত্রে পরিশ্রম অনেকটাই বেশি হয়। গত ১৫ বছরে টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রি আমাকে অনেক কিছু দিয়েছে। কিন্তু এ বার এগিয়ে যাওয়ার সময়।”