১২২ পা’ও’য়া’র জোরা’লো দাবি, ২ মে হেঁ’টে রাজভবনে যাওয়ার জন্য মমতাকে শু’ভে’চ্ছা অমিত শাহের

একুশের নির্বাচনের নির্ঘণ্ট অনুযায়ী গতকাল রাজ্যে পাঁচ দফা নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। এখনো তিন দফা নির্বাচন বাকি। পঞ্চম দফার নির্বাচনের পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বিধঁলেন বঙ্গে বিজেপির জয় সম্পর্কে আত্মপ্রত্যয়ী কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। রাজ্যের ফলাফল প্রকাশের আগে দিদির সুস্থতা কামনা করলেন তিনি। যাতে মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজ পায়ে হেঁটে রাজভবনে যেতে পারেন।

রবিবার জামালপুরের সভা থেকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে বলেন, দিদি আপনি ২রা মের আগেই সেরে উঠুন। যাতে রাজ্যপালের কাছে ইস্তফাপত্র দিতে যাওয়ার সময় তিনি নিজের পায়ে হেঁটে যেতে পারেন। অমিত শাহের দাবি, বাংলায় তৃণমূলের গুন্ডারা এখন কিছুই করতে পারছে না। মুখ্যমন্ত্রী তাই হতাশায় ভুগছেন।

পাশাপাশি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দাবি করে বলেন, বিজেপি ইতিমধ্যেই পাঁচ দফা নির্বাচনে ১২২টি আসন জিতে নিয়েছে। বিগত কয়েকদিন ধরেই প্রত্যেক দফার ভোটের পর আসন সংখ্যা অনুযায়ী বিজেপি কত আসন জিততে পারে তার সম্ভাব্য পরিসংখ্যান জনসমক্ষে তুলে ধরছেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বরা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়া নিয়ে নিশ্চিত।

বঙ্গ বিজেপির সদস্যরা অবশ্য দাবি করছেন, ছয় দফার নির্বাচনের পরেই বিজেপি রাজ্যের ক্ষমতায় আসার জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়ে যাবে। বাকি দুই দফায় যে আসনে জিতবে বিজেপি, সেই আসনগুলি হবে বাড়তি পাওনা। মোটকথা ভোটের রাজনীতি ক্রমাগত সরগরম হয়ে উঠছে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব দের দাবিকে কেন্দ্র করে।