তৃণমূলে থাকলেও তারাপীঠ উন্নয়ন পর্ষদে থাকতে আগ্রহী নন শতাব্দী

তাহলে একুশে বিধানসভা নির্বাচনের আগে তৃণমূলে কি আরেক ভাঙ্গন? কারণ বীরভূমের তৃণমূল সাংসদ শতাব্দী রায় এবার স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে তারাপীঠ রামপুরহাট উন্নয়ন পর্ষদে তিনি আর থাকতে চান না। গতকাল রবিবার এই নিয়ে তিনি স্পষ্ট বার্তা দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, পর্ষদে আমার মতামত দেওয়ার কোন জায়গা নেই,যদি আমি এই পদে থেকেও কোনো মতামত বা কোনো সিদ্ধান্ত নিতে না পারি তাহলে এখানে থেকে পদ আটকে রাখার কোনো প্রশ্ন নেই।

তিনি তার নিজের সংসদ এলাকায় কাজ করতেও বাধাপ্রাপ্ত হয়েছে, সেই ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন তিনি। এর পরেই জল্পনা শুরু হয় বিরাট। তাহলে কি আরেক ভাঙ্গন তৃণমূলে? এর পরেই তড়িঘড়ি করে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠকে যোগদান শতাব্দি রায়। তারপরেই ফেসবুকে জানিয়ে দেওয়া হয় তিনি তৃণমূলে থাকছেন। কিন্তু এই থাকা কি আগের থাকার মতন? এই নিয়ে ওঠে প্রশ্ন। এরপরই তিনি গতকাল রবিবার রামপুরহাটে এসে এই কথা বলেন।