অবৈধ বাংলাদেশিদের মুম্বইয়ে মাথা গুঁজতে সাহায্য করছে AIMIM নেতারা, উঠে এলো তথ্য

যারা বাংলাদেশের অনুপ্রবেশকারী তাদের এবার ভারতের মধ্যেই থাকার ব্যবস্থা করে দিচ্ছে ভারতের প্রভাবশালী ব্যক্তিরা। আর সম্প্রতি তার প্রমাণ পাওয়া গেছে বলেই খবরটি সামনে এসেছে। স্বাভাবিক ভাবেই বাংলাদেশের অনুপ্রবেশকারীদের গত বছরই হাতে নাতে পাকরাও করা হয়েছিল আর তার ফলেই তারা ছিল পুলিশি হেফাজতে।কিন্তু এবার শোনা যাচ্ছে আরেক খবর।অবৈধভাবে মুম্বাইয়ে থাকার ব্যবস্থা করে দেওয়া হচ্ছে সেই সব বাংলাদেশের অনুপ্রবেশকারী দের, আর যার পেছনে রয়েছে ভারতের কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তি।

তবে এই খবর জানতে পেয়েই তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ, আর তাদের জেরা করে জানতে পারে তাদের ২ জন এজেন্ট থাকার ব্যবস্থা করে দেয়। সাথে আরও জানা যায় তারা নাকি বাংলাদেশের বিভিন্ন জাল নথী ছাপিয়ে মুম্বাইয়ের সাকিনাকা অঞ্চলে থাকার ব্যবস্থা করছিলো। তাদের পাকরাও করার পরে তাদের কাছ থেকে ১৫৫ টি আধার কার্ড, ২৮ প্যান কার্ড, ১৮৭ ব্যাঙ্ক ও পোস্টাল ডিপার্ট্মেন্টের পাসবুক, ৩৪ টি পাসপোর্ট, ১৯ টি রাবার স্ট্যাম্প ও ২৯ টি ভুয়ো স্কুল লিভিং সার্টিফিকেট। কিন্তু এই সবের মধ্যেই যে জিনিসটি পাওয়া গেছে সেটা দেখে অবাক পুলিশও, আসলে এই সবের সাথে পাওয়া গেছে কিছু লেটার হেড।

যেখানে কিনা আসাউদ্দিন ওয়েসিয়র দল AIMIM যে দুজন বিধায়ক আছে তাদের দেওয়া চিঠি, শেখ হাসিফ ও মফতি মহম্মদ ইসমাইল। তবে হ্যা এতো কিছু জালের মধ্যে এই লেটার হেডের বিষয় জাল কিনা সেটা এখনও জানা যায় নি। তবে এই পর্যন্ত বিভিন্ন প্রমাণ পাওয়ায় মনে করা হচ্ছে বিধায়কদের সাহায্যেই হচ্ছে এই সব কাজ। তবে তদন্ত শুরু হয়ে গেছে, সব কিছু ক্ষতিয়ে দেখার জন্য উপযুক্ত কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত পর্যন্ত গ্রহন করা হয়েছে, যার ফলে সত্যি প্রমাণ হলে বিধায়কেরা সমস্যায় পরবেই।।