ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত বিজেপি সাংসদ অভিনেত্রী কিরণ খের, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন

হিন্দি চলচ্চিত্র জগতে কিরণ খের উজ্জ্বলতম নাম। তবে এই মুহূর্তে তিনি ভালো নেই। অভিনয় করার পাশাপাশি তিনি সমানতালে করেছেন রাজনীতি।চণ্ডীগড়ের বিজেপি সাংসদ কিরণ খের বর্তমানে হয়েছেন ক্যান্সারে আক্রান্ত।ঠিক এই খবরটা আমাদের সকলকে সোশ্যাল মিডিয়ায় জানালেন চণ্ডীগড়ের বিজেপি সভাপতি অরুণ সুদ।

জানতে পারা গেছে যে, অভিনেত্রী বেশ কিছু বছর ধরে মাল্টিপল মায়ালেমা রোগে আক্রান্ত।এক প্রকার ব্লাড ক্যান্সারের অন্যতম প্রকার। গত বছরের শেষের দিকে তার হাত ভেঙে যাওয়ার পর জানতে পারা গিয়েছিল এই রোগের কথা।কিন্তু ততক্ষণে সেটি হাত থেকে কাধ অবধি ছড়িয়ে গিয়েছিল এবং সেটিকে আটকানো প্রায় অসম্ভব হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু টানা এক বছরের চিকিৎসার পর আপাতত কিছুটা সুস্থ হয়েছেন কিরণ খের, এমনটাই শুনতে পাওয়া যাচ্ছে। তিনি কোকিলাবেন হাসপাতালে চিকিৎসকদের চিকিৎসাধীন ছিলেন।

বর্তমানে তিনি হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়ে বাড়িতে চলে এসেছেন। মোটামুটি ভালই রয়েছেন তিনি। তবে দীর্ঘদিন চিকিৎসাধীন থাকতে হবে তাকে। ধীরে ধীরে এই রোগ থেকে মুক্তি পাবেন এমনটাই আশা করছেন তারা। ২০১৪ সালে তিনি প্রবেশ করেছিলেন রাজনীতিতে।বিপুল ভোটে জয়যুক্ত হয়ে তিনি হয়েছিলেন চণ্ডীগড়ের রাজ্য সভাপতি। এরপর আরো একবার ২০১৯ সালে বিপুল ভোটে জয় যুক্ত হয়েছিলেন তিনি।

কিরণ খের তার জীবনে বেশিরভাগ পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করেছেন। একসময় রিয়্যালিটি শোতে বিচারকের আসনে দেখতে পাওয়া গেছে তাকে। অভিনয় জীবনে সরদারি বেগম এবং বাড়িওয়ালী র জন্য দুই বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে পুরস্কৃত হয়েছিলেন তিনি। মে হু না থেকে শুরু করে সঞ্জয় লীলা বানশালী পরিচালিত দেবদাস সর্বক্ষেত্রে অসাধারণ অভিনয় করে সকলের মনে ছাপ ফেলে রেখেছেন তিনি। অভিনয় করার পাশাপাশি তিনি ব্যাডমিন্টন খেলাতেও যথেষ্ট দক্ষতা দেখিয়েছেন।দীপিকা পাডুকনের বাবা প্রকাশ পাড়ুকোনের সঙ্গে জাতীয় স্তরে ব্যাডমিন্টন খেলে ছিলেন তিনি। শাড়ি অত্যান্ত পছন্দের পোশাক বলে তাকে যে কোন অনুষ্ঠানে শাড়ি পরতে দেখা যায়।