আইআইটি পাশ যুবক, রেলের তৎকাল টিকিট কাটার সফটওয়ার বানিয়ে আয় ২০ লক্ষ টাকা, সে এখন শ্রীঘরে

অনলাইন টিকিট বুকিংয়ের ক্ষেত্রে দালাল চক্রের সক্রিয়তা অথবা টিকিট বুকিংয়ে কারচুপির অভিযোগ বহুদিন আগেই উঠেছিল। দ্রুত টিকিট বুকিং প্রক্রিয়া সম্পন্ন বিভিন্ন ওয়েবসাইট এবং অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে আইআরসিটিসির টিকিট চড়া দামে বিক্রি করে থাকে এই সকল দালালরা। সম্প্রতি, রেল পুলিশের তরফ থেকে রেলের টিকিটের কারচুপির সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

রেল পুলিশ সূত্রে খবর, ওই ব্যক্তি খড়গপুর আইআইটির একজন প্রাক্তনী, তার নাম এস যুবরাজন। যিনি আইআরসিটিসি অনলাইন টিকিট বুকিং অ্যাপ্লিকেশনের সমতুল “সুপার তৎকাল” নামক একটি অ্যাপ্লিকেশন বানিয়েছিলেন। এই অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে খুব দ্রুত এবং সহজেই আইআরসিটিসির টিকিট বুক করা যায়। এর মাধ্যমে ইতিমধ্যেই ২০ লক্ষ টাকা উপার্জন করে নিয়েছেন তিনি।

উল্লেখ্য, আইআরসিটিসির নিজস্ব ওয়েবসাইট থেকে যারা টিকিট বুক করেন তারা প্রায়ই এই অভিযোগ করেন যে, এখানে টিকিট বুকিং পদ্ধতি কিছুটা হলেও বেশ জটিল এবং দ্রুত টিকিট বুক করা সম্ভব হয় না। এমতাবস্থায় এস যুবরাজন যে অ্যাপ্লিকেশন জনসমক্ষে এনেছিলেন, তাতে টিকিট বুকিংয়ের বেশ কয়েকটি পর্যায় এড়িয়ে গিয়ে দ্রুত টিকিট বুক করা সম্ভব হচ্ছিল।

এর ফলে জনসাধারণের কাছে “সুপার তৎকাল” এর জনপ্রিয়তা বাড়ছিলো। কিন্তু রেলের আয় কমে যাচ্ছিল। এই অ্যাপে গেমিং অ্যাপগুলির মতো কয়েনবেসড পেমেন্ট সিস্টেম চালু করেছিল যুবরাজ। নির্দিষ্ট অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে গত মাসেই এস যুবরাজনকে গ্রেফতার করেছে রেলওয়ে প্রোটেকশন ফোর্স। সূত্রের খবর, ২০১৬ সালে আইআরসিটিসি বিকল্প অ্যাপ্লিকেশন হিসেবে এই “সুপার তৎকাল” এনেছিল যুবরাজ। বর্তমানে অ্যাপ্লিকেশনটিকে গুগল প্লে স্টোর থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।