একদম সাধারণ একজন ব্যক্তি, তিনিই কিনলেন দেশের সবথেকে দামি বাড়ি, চিনে নিন তাকে

কোটিপতি বিনিয়োগকারী রাধাকৃষ্ণ দামানি কে অনেকেই চেনেন। তবে যাঁরা চেনেন না তারা খুব সহজে তাকে চিনতে পারবেন না কেউ। শেয়ারবাজারে বিনিয়োগকারী হিসেবে খুবই পরিচিত এই ব্যবসায়ী। সম্প্রতি তিনি কিনেছেন দেশের সবথেকে দামি গাড়ি। গাড়ি ছাড়াও মালাবার পাহাড়ের এক হাজার কোটি টাকা দিয়ে কিনেছেন একটি বাড়ি। ছোট ভাই গোপি কিষণ দামানির সঙ্গে মিলে তারা কিনেছেন এই বাড়িটি।

রাধাকৃষ্ণ নতুন বাড়িটি রেজিস্ট্রেশন করিয়েছেন ৩১ শে মার্চ। সম্প্রতি তিনি সম্প্রতি কিন্তু তাকে এবং তার পরিবারকে স্ট্যাম্প ডিউটি হিসেবে দিতে হয়েছে ৩০ কোটি টাকা। যে বাড়ির কথা এখানে বলা হচ্ছে তার নাম দেয়া হয়েছে মধুকুঞ্জ। পাহাড়ের কোলে বিস্তীর্ণ এলাকাজুড়ে বানানো হয়েছে এই বাংলোটি।

Radhakishan damani in headlines after buying 1001 crore property at malabar  hill | 1001 करोड़ का बंगला खरीद सुर्खियों में है यह अरबपति, एक आइडिया से  रातोंरात बनाए 1 लाख करोड़…!

আমাদের দেশের চতুর্থ ধনী ব্যক্তি হিসেবে নাম রয়েছে এই ব্যবসায়ীর। তবে স্বাভাবিকভাবেই এই উত্থান একদিনে আসেনি। শহরতলীর এলাকা থেকে খুচরো কারবার শুরু করেছিলেন তিনি। বিয়ার থেকে শুরু করে তামাক উৎপাদন সব কিছুতেই লগ্নি করেছিলেন তিনি। আজ মুম্বাইয়ের ১৫৬ কি কামরার রিসোর্ট এর মালিক একমাত্র তিনি।

প্রায় দুই দশকে দামানের এই উত্থান বলে দিচ্ছে যে তিনি যে কতখানি ঝুঁকি নিয়ে ছিলেন। ঝুঁকি নেওয়ার পরেই এসেছে তার জীবনে এই সাফল্য। অবশ্যই তার জন্য ভাগ্য কিছুটা সঙ্গ দিয়েছ। তবে এই ব্যবসায়ীর একটি সবথেকে বড় বৈশিষ্ট্য হলো যে তিনি খুব সহজ মানুষ হয়ে থাকতে ভালোবাসেন। রাধাকৃষ্ণ শেয়ারবাজার থেকে কোটি কোটি টাকা উপার্জন করেছিলেন তিনি। এরপর রিটেল কারবারি ব্যবসা শুরু করা কথা ভেবেছিলেন তিনি। তবে এতকিছুর পরেও তিনি একজন সাধারন মানুষ হিসেবেই থাকতে ভালোবাসেন।

ব্যক্তিগত জীবনে ছোটবেলা থেকেই একাউন্ট এর প্রতি আকর্ষণ ছিল তার। সেই আকর্ষণ তার জীবনে এনে দিয়েছে সাফল্য। বর্তমানে তিনজন মেয়ের সফল বাবা হলেন দামানি।