কোভিড ভ্যা’ক’সি’ন নিতে হলে ছাড়তেই হবে মদ্যপান, কড়া সতর্কবাণী শোনালেন একদল গবেষক

আর মাত্র কয়েকটা দিনের অপেক্ষা। কোভিশিল্ড এবং কো-ভ্যাকসিন, ভারতে এই মুহুর্তে এই দুটি করোনা ভ্যাকসিন অনুমোদন পেয়ে গিয়েছে। চলতি বছরের প্রথমার্ধেই কেন্দ্রীয় সরকারের উদ্যোগে দেশের অন্তত ৩০ কোটি মানুষের কাছে করোনা প্রতিরোধী ভ্যাকসিন পৌঁছে যাবে। কিন্তু কোনো ব্যক্তির শরীরে ভ্যাকসিন কি রকম কাজ করবে তার জন্য কিন্তু দায়ী হবে সেই ব্যক্তির দৈনন্দিন জীবন শৈলী।

ম্যানচেস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণারত একদল গবেষক জানাচ্ছেন, আপনার দৈনন্দিন জীবন শৈলীতে যদি অ্যালকোহলের প্রাদুর্ভাব থেকে থাকে তাহলে শরীরে করোনা ভ্যাকসিন কাজ করবে না! এই খবর শুনে সুরা প্রেমীদের স্বভাবতই মাথায় বাজ পড়ার অবস্থা। অর্থাৎ, মদ্যপায়ীরা যদি অ্যালকোহল সেবন এখনই না ছাড়েন তাহলে তাদের শরীরে করোনা প্রতিরোধী ভ্যাকসিন কোন কাজই করবে না।

কিন্তু কেন এমনটা হবে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা? সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমিউনোলজিস্ট তথা অধ্যাপক শীনা ক্রুইকশ্যাঙ্ক জানাচ্ছেন, অ্যালকোহল শরীরে পৌঁছিয়ে প্রথমেই অন্ত্রের মধ্যে উপস্থিত মাইক্রোঅর্গানিজমের রূপ বদলে দেয়। যে কারণে রক্তে উপস্থিত শ্বেত রক্তকণিকার বাইরে থেকে আগত ভাইরাস বা ব্যাকটেরিয়ার সঙ্গে লড়াইয়ের ক্ষমতা থাকে না। ফলে ভাইরাস স্বভাবতই শরীরে আক্রমণ করে বসে।

ইমারজেন্সি মেডিসিন বিভাগের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক রনেক্স ইখারিয়া জানালেন, ৩ পেগ মদ সেবনের পর থেকেই শরীরে শ্বেত কণিকার ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করার ক্ষমতা কমতে থাকে। ক্ষেত্রবিশেষে তা শ্বেত রক্তকণিকার কার্যক্ষমতা প্রায় ৫০ শতাংশ কমিয়ে দিতে পারে। এমতাবস্থায় বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ, করোনার বিরুদ্ধে লড়তে চাইলে মদ্যপান থেকে বিরত থাকুন।