পৃথিবীর পাশেই জোট বাঁধছে একঝাঁক তারা, “গ্যালাক্সি ক্লাস্টার” এখন আমাদের প্রতিবেশী

পৃথিবীর আশেপাশে এবার জোট বেঁধে বাসা বেধেছে বড় বড় গ্যালাক্সির ঝাঁক। গ্যালাক্সিগুলোর এক একটিতে তারার সংখ্যা প্রায় ৫০০ করে। এই গ্যালাক্সি গুলি থেকে দেখা যাচ্ছে উজ্জ্বল আলো। বোঝাই যাচ্ছে যে পৃথিবীর পাশে নতুন প্রতিবেশী এসে উপস্থিত হয়েছে এবং যার সন্ধান পেয়েছে এম আই টির গবেষকরা। গবেষকরা বলেছেন যে, এই গ্যালাক্সি গুলোতে হাজার হাজার তারারা রয়েছে এবং যারা একে অপরের সাথে মিলে রয়েছে এবং যার জন্য এই মহাকাশে ছড়িয়ে পড়ছে অজস্র আলো।

একে বলা হয় ছায়াপথ। এটির আকার এবং আয়তনে হয় বিশাল বড় এবং অভিকর্ষ শক্তির ফলে একেকটি তারা একে অপরের সাথে জোট বেঁধে থাকতে পারে। তবে এই গ্যালাক্সি ওয়ার্ল্ড এর মাঝে কোন রকম ব্ল্যাকহোল রয়েছে কিনা সে ব্যাপারে এখনও নিশ্চিত ভাবে বলা সম্ভব হয়ে ওঠেনি গবেষকদের। যে সমস্ত তারাগুলি গ্যালাক্সিতে রয়েছে সেগুলি থেকে প্রচন্ড পরিমানে এক্স রে রশ্মি বেরোয়। গ্যালাক্সিতে যে সমস্ত তারা গুলো রয়েছে সেগুলো জ্বলজ্বল করছে গ্যালাক্সির ভেতরেই জন্ম এবং মৃত্যু হচ্ছে রোজ এক একটি তারার। মহাকাশের গবেষকরা এই গ্যালাক্সিটিকে দেখতে পেয়েছে হাবল স্পেস টেলিস্কোপ এর মাধ্যমে।

এই গ্যালাক্সিটি সাধারণ ছায়াপথের থেকে অনেক বেশি বড় প্রায় ১০ গুণ । এই গ্যালাক্সি টির নাম হল এ২২৬১ বিসিজি। গবেষকরা এই গ্যালাক্সি সম্পর্কে বলেছিলেন যে, প্রত্যেকটি গ্যালাক্সির মধ্যে একটি বড় আকারের ব্ল্যাক হোল থাকে, যেটার মাধ্যমে একাধিক তারারা সেই ব্ল্যাকহোলের মাধ্যমে শিকার হয়। ওই ব্ল্যাকহোল যখন ঐ তারা গুলো দের খায় সেই সময়ে তারাদের শরীর ছিড়ে যায় এবং সেই ছেঁড়া শরীর থেকে আলোর তরঙ্গ বের হয়ে আসে এবং সেটা মহাকাশে ছড়িয়ে পরে।

এই ভাবেই চলছে নতুন জন্ম-মৃত্যুর খোলা গ্যালাক্সি ক্লাস্টারের। এই গ্যালাক্সির ভেতরে জন্ম হয়ে থাকেন নতুন নক্ষত্রদের। বিজ্ঞানীদের মতে গ্যালাক্সির ভেতরে যে গ্যাসিও স্তর থাকে তারাই ছোট তারাদের খাবার হিসেবে গ্রহণ করে এবং যার পরেই তৈরি হয় বড় একটি তারা। ২০১৫ সালের নতুন ৩৫ টি ছোট ছোট তারা আর খোঁজ পাওয়া গিয়েছিল একটি ছায়াপথে।

মহাকাশ বিজ্ঞানীরা এটা ভেবেছিল যে, এই ছায়াপথ টির আশেপাশে কোন নতুন ছায়াপথ আর দেখা যাবে না, কিন্তু যখন একটি নতুন তারার ঝাঁক দেখা গেল বিজ্ঞানীদের সেই ধারণা ভুল প্রমাণিত হলো। বিজ্ঞানীদের মতে এই ছায়াপথে যে, সমস্ত তারাগুলি রয়েছে তাদের বয়স প্রায় ১০ কোটি বছর এবং এই সমস্ত তারা গুলির মধ্যে যেটি সবথেকে ছোট তাড়াতাড়ি বয়স প্রায় আড়াই কোটি বছর।