মুদ্রাস্ফীতি সামাল দিতে বাজারে আসতে পারে ১ লাখ টাকার নোট, পরিকল্পনা এক দেশের

ভেনেজুয়েলার মতো শহর একটা সময় খুবই সমৃদ্ধ ছিল সব দিক থেকে, এবার সেটাই এখন এতটা অর্থনৈতিক দিক থেকে খারাপ অবস্হায় পরিণত হয়েছে যা সত্যি আর বলার মতো না। কারণ এখন দেশের মুদ্রার মূল্য কমে গেছে অনেকটাই। যার ফলে সেখানে থাকা মানুষদের অনেকটাই নাজেহাল হতে হচ্ছে। এখন এক কাপ চা খেতে গেলেই ব্যাগ ভরে টাকা দিতে হচ্ছে। এখন এই অসুবিধা থেকে বাঁচার কি উপায়? সেই কারণেই ভেনেজুয়েলার সরকার দারুণ একটি পরিকল্পনা করেছে, বড় অঙ্কের নোট বাজারে আনার।

এদিকে আবার নিজের ঘাটতি যাতে না হয় সেইজন্য বাইরে থেকেও টাকা ছাপানোর কাগজ আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সেই দেশের সরকার। এবার ভেনেজুয়েলার সরকার জানিয়েছে তারা এক লক্ষ বলিভার অঙ্কের টাকা বাজারে নিয়ে আসতে চলেছে যার ফলে সাধারণ মানুষ সহজেই জিনিসপত্র কিনতে পারবে। অর্থাৎ এক কেজি আলু কিনতে পারবে সেটা দিয়ে যেটার মূল্য ০.২৩ মার্কিন ডলার।

মুদ্রাস্ফীতি এর আগেও হয়েছিল যার ফলে ৫০ হাজার টাকার নোট ছাপিয়েছিল ভেনেজুয়েলার সরকার। এবার তার থেকেও বেশী অঙ্কের টাকা ছাপাতে চলেছে তারা। এটা নতুন কিছু নয়, কারণ এর আগে টানা ৭ বছর থেকেই আর্থিক মন্দার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে ভেনেজুয়েলা। তবে সরকার সাধ্যমতো চেষ্টা করে যাচ্ছে, কিন্তু এবার করোনা তেলের দামের হ্রাসের কারণে ফের মন্দার মুখে ভেনেজুয়েলা। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন আসলে এখন ফের আরেক বিশাল মন্দার মুখে পরতে চলেছে তারা।