বিহারের পর এবার সারা দেশ জুড়ে মদ নিষিদ্ধ করার দাবি তুললেন নীতীশ কুমার

সারা দেশে জুড়ে মদ নিষিদ্ধ করার দাবি তুললেন নীতীশ কুমার

আমরা সবাই জানি বিহারে মদ বন্ধ করা হয়েছে, আর সেটা ২০১৬ সালে। কিন্তু এখন নীতীশ কুমার জেডেইউ এর নেতা, যিনি বলেছেন এবার শুধু বিহারেই মদ বন্ধ করলে হবে না। এই মদ এবার সারা দেশে বন্ধ করতে হবে। এবার এই দাবি রেখেছেন তিনি। তিনি এই মদ বিক্রি বন্ধ করার জন্য, মদ মুক্ত ভারত তৈরী করার জন্য দিল্লিতে গিয়ে বক্তৃতা পর্যন্ত দিয়েছিল। আর সেই বক্তৃতাতেই তিনি বলেছিলেন, আমাদের দেশ মদ মুক্ত করতে হবে।

এর জন্য গুটি কয়েক রাজ্যে, শহরে বন্ধ করলেই হবে না। এর জন্যও সারা দেশে বন্ধ করাটা জরুরি। এই মদের ওপরে এবার আনা হবে নিষেধাজ্ঞা। তিনি সেই বক্তৃতাতে গান্ধিজীর উল্লেখ করেন। আর তিনি সেখানে বলেন, গান্ধীজি ছিলেন তিনি মদ বন্ধ করার পক্ষে কথা বলেছিলেন। তিনি বলেছিলেন এই মদ সারা দেশকে খেয়ে ফেলছে। এবার এই মদ বন্ধ করা আবশ্যক হয়ে উঠেছে। এদিকে তিনি আরও বলেন, তিনি কার্পুরি টাহকুরের কথা বলেন, তিনি সেখানে বলেন, এই ঠাকুর মদ বন্ধ করার পরিকল্পনা নিয়েছিল, আর তিনি এটাতে সফল হয় নি।

তিনিও এই মদ বন্ধ করার পেছনে খেটেছেন অনেকে। তাই তিনি বলেন আমিও খেটেছি এই মদ বন্ধ করার পেছনে, কিন্তু সফল হতে পারি নি। আমার এই চেষ্টা ২০১১ থেকে, যা শেষ পর্যন্ত বাস্তবায়িত হয়েছে ২০১৬ সালে। শেষ পর্যন্ত আমাদের চেষ্টা সফল হয়েছে। আমরা বিহারে মদ বন্ধ করতে পেরেছি। কিন্তু এই মদ এখন শুধু এক রাজ্যেই বন্ধ করলে হবে না, এটা সারা দেশে বন্ধ করাটা জরুরি।

আসলে এই মদ বিক্রি করেই বেশীরভাগ রাজ্যের রাজস্ব আদায় করা হয়। এবার এই আন্দোলন সেসব রাজ্যের মূল কেন্দ্রে আঘাত করবে। কারণ আমাদের দেশকে মদ মুক্ত করতেই হবে। আর তার ফলে মানুষের সাহায্যটা খুবই দরকা। এদিকে দেখা গেলে মদের সাথে অনেক লোকের ব্যবসা, কাজ জড়িয়ে, এবার সেটার সংখ্যাকেও কমাতে হবে।