যেকোনো মুহূর্তে বন্ধ হতে পারে ভোডাফোন! গ্রাহক সহ বহু কর্মীর মাথায় পড়তে পারে বাজ!

যা ভাবা হচ্ছে সেদিকেই যেনো সব কিছু এগোচ্ছে ধীরে ধীরে। কারণ এই বকেয়া নিয়ে টেলিকম সংস্থার ওপরে যে চাপ দেওয়া হচ্ছে, তাতে এবার পিসে যাওয়ার জোগাড় ভোডাফোনের। কারণ সবথেকে বেশী বকেয়া এই ভোডাফোন আইডিয়ার। তো এবার কেন্দ্র ও সুপ্রিম কোর্ট চাপ দিয়েছে যেভাবেই হোক এখন বকেয়া মেটাতে হবে। কিন্তু ভোডাফোন আগেই জানিয়েছিল এই বকেয়া মেটাতে হলে তাদের ভারত থেকে ব্যবসা তুলে নিতে হবে। আর সেটাই যেনো হচ্ছে এবার।

আর তারফলে এখন সেই সংস্হার ওপরে প্রভাব পরতে চলেছে। সেখানে ১০,০০০ মানুষ এবার নিজেদের কাজ হারাতে চলেছে। এই নিয়ে ভোডাফোনের আইনজীবী জানায়, এখন কেন্দ্রের ও সুপ্রিম কোর্টের যে চাপ, তাতে বোঝা যাচ্ছে হয়তো ভারতে ব্যবসা বন্ধ করতে পারে ভোডাফোন। আর তার ফলেই ভোডাফোনের ১০,০০০ হাজার কর্মী কাজ হারাতে পারে। এখানেই সমস্যা শেষ হচ্ছে না, কারণ এখন মোট গ্রাহক ৩০ কোটি, আর তাদের ওপরেও একটা বিশাল প্রভাব পরবে।

আর তারফলে ভারতের টেলিকম ব্যবসাও ক্ষতির মুখে পরবে, সাথে গ্রাহকরাও চাপে পরবে। এখন ভোডাফোনের মোট বকেয়া ৫৪ হাজার কোটি। আর তরফলেই এখন তাদের সমস্ত বকেয়া মেটাতে হলে দেউলিয়া হওয়া ছাড়া আর কোনো উপায় নেই। তাই এখন বলতে হয় যে প্রায় ভারতে বন্ধের মুখে ভোডাফোন। এর আগেও ভোডাফোনের চেয়ারম্যান কুমার মঙ্গলাম বিড়লা বলেছিল সরকার সাহায্য না করলে আমাদের ভারত থেকে এবার ব্যবসা গুটিয়ে নিতে হবে।

তো সুপ্রিম কোর্ট সব টেলিকম সংস্হাগুলোকে তিনমাসের সময় দেওয়া সত্ত্বেও তারা টাকা মেটায় নি। এবার সরকারও টেলিকম সংস্হাগুলো থেকে বিশেষ করে ভোডাফোনের থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। তাই এখন ভোডাফোনের অবস্হা দিনের পর দিন খারাপ হয়ে চলেছে, আর তারফলেই কর্মীরাও কাজ হারানোর ভয়ে চিন্তায় আচ্ছন্ন হয়ে পরেছে।